অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে 'মুজিব' বায়োপিকের ট্রেইলারটি দারুণ সাড়া ফেলেছে- তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ


তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে 'মুজিব' বায়োপিকের ট্রেইলারটি দারুণ সাড়া ফেলেছে বলে শুক্রবার ভয়েস অফ আমেরিকাকে বলেন বাংলাদেশের তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি আরও বলেন, একটি জাতি বিনির্মানে জন্য বঙ্গবন্ধুর ত্যাগ, সংগ্রাম ও অর্জনের কথা সবাই যাতে জানতে পারে সেই জন্যেই এই ছবিটি নির্মান করা হয়েছে। এটি শুধুমাত্র বাংলা ভাষাভাষী মানুষের জন্যেই নয়, সমস্ত পৃথিবীর মানুষ যাতে দেখতে পারে সেইজন্যে ইংরেজি, হিন্দি এবং অন্যান্য ভাষাতেও প্রয়োজনে ডাবিং ও সাবটাইটেল তৈরির পরিকল্পনা তাদের রয়েছে বলে তিনি জানান।

তিনি আরও বলেন, একটি জাতি বিনির্মানে জন্য বঙ্গবন্ধুর ত্যাগ, সংগ্রাম ও অর্জনের কথা সবাই যাতে জানতে পারে সেই জন্যেই এই ছবিটি নির্মান করা হয়েছে। এটি শুধুমাত্র বাংলা ভাষাভাষী মানুষের জন্যেই নয়, সমস্ত পৃথিবীর মানুষ যাতে দেখতে পারে সেইজন্যে ইংরেজি, হিন্দি এবং অন্যান্য ভাষাতেও প্রয়োজনে ডাবিং ও সাবটাইটেল তৈরির পরিকল্পনা তাদের রয়েছে বলে তিনি জানান।

ছবির মুক্তি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, "ছবিটি রিলিজ হবে বাংলাদেশে।" রিলিজের পর পৃথিবীর অন্যান্য চলচ্চিত্র উৎসবে ছবিটি নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা তাদের আছে বলে জানান তথ্যমন্ত্রী।

ব্রাসেলস-এর উদ্দেশ্যে রওয়ানা হওয়ার আগে বিমানবন্দর থেকে একথাগুলো টেলিফোনে ভয়েস অফ আমেরিকাকে বলেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। শুক্রবার তিনি বেলজিয়ামের উদ্দেশ্যে ফ্রান্স ত্যাগ করেন।

ফ্রান্সের বিশ্বখ্যাত কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের ৭৫তম আসরের তৃতীয় দিন, বৃহস্পতিবার (১৯ মে) স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ছ'টায় ভারতীয় প্যাভিলিয়নে, বাংলাদেশ-ভারত যৌথ উদ্যোগে নির্মিত এই বায়োপিকের ট্রেলার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশের তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এবং ভারতের তথ্য ও সম্প্রচার এবং যুব বিষয়ক ও ক্রীড়া মন্ত্রী অনুরাগ সিং ঠাকুর।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, “চলচ্চিত্র 'মুজিব' -এ আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন, জাতির জন্য সংগ্রাম থেকে বিজয় ও পরম আত্মত্যাগের চিত্র ফুটে উঠেছে।”

বঙ্গবন্ধু, মহাত্মা গান্ধী, মার্টিন লুথার কিং, নেলসন ম্যান্ডেলার মতো মহান মানুষদের জীবনী একটি চলচ্চিত্রে ফুটিয়ে তোলা দুরূহ হলেও, বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত এই সিনেমাটি, বঙ্গবন্ধুর চেতনাকে যুগে যুগে জাগ্রত রাখবে এবং মানবতার জন্য আত্মনিবেদনের প্রেরণা যোগাবে বলে মন্তব্য করেন বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

ভারতের তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী অনুরাগ সিং ঠাকুর তার বক্তব্যে, বাংলাদেশের সঙ্গে যৌথভাবে বঙ্গবন্ধুর জীবনচিত্র নির্মাণের এ কাজকে তাদের জন্য অত্যন্ত আনন্দ ও গর্বের বলে বর্ণনা করেন।

ফ্রান্সে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত খন্দকার মোহাম্মদ তালহা, ভারতের রাষ্ট্রদূত জাভেদ আশরাফ, ভারতের তথ্য ও সম্প্রচারসচিব অপূর্ব চন্দ্র, বায়োপিকের পরিচালক শ্যাম বেনেগাল, নির্বাহী প্রযোজক এফডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুজহাত ইয়াসমিন, বঙ্গবন্ধুর চরিত্রাভিনেতা আরেফিন শুভ, বঙ্গমাতার চরিত্রাভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা, চিত্রনাট্যকার অতুল তিওয়ারি ও শামা জায়েদি, বাংলাদেশ অংশের কাস্টিং পরিচালক বাহার উদ্দিন খেলনসহ দু'দেশের অভিনয় শিল্পী ও চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

২০২১ সালের শুরুতে সিনেমাটির চিত্রধারণ শুরু হয়। আরেফিন শুভ ও নুসরাত ইমরোজ তিশার পাশাপাশি, শেখ হাসিনার চরিত্রে নুসরাত ফারিয়া, তাজউদ্দীন আহমদের চরিত্রে রিয়াজ আহমেদসহ প্রায় শতাধিক বাংলাদেশি এতে অভিনয় করেছেন।

XS
SM
MD
LG