অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইসরাইলের সেনাবাহিনী শনাক্ত করেছে সেই রাইফেল যা দিয়ে সাংবাদিক শিরীনকে হত্যা করা হয়


গাজা উপত্যাকার মধ্যাঞ্চলে মুঘরাকার আল আজাহার বিশ্ববিদ্যালয়ে, নিহত আল জাজিরা সাংবাদিক শিরিন আবু আকলেহ-এর প্রতীকী শেষকৃত্যের সময়, ছাত্ররা একটি ছায়া কফিন বহন করছে। ১৬ মে, ২০২২। ফাইল ছবি।

ইসরাইলী সামরিক বাহিনী এক সৈনিকের একটি রাইফেল শনাক্ত করেছে। এই রাইফেল দিয়েই আল জাজিরার সাংবাদিক শিরিন আবু আকলেহকে হয়তো হত্যা করা হয়েছেতবে, একজন সামরিক কর্মকর্তা বলেছেন,পরীক্ষার জন্য, ফিলিস্তিনিরা বুলেটটি ফিরিয়ে না দিলে, এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যাবে

রাইফেল শনাক্তকরণের বিষয়টি, আবু আকলেহ-এর হত্যার তদন্তে অগ্রগতির একটি ক্ষুদ্র চিহ্ন। সাংবাদিক শিরিন আবু আকলেহ ১১ মে অধিকৃত পশ্চিম তীরে ইসরাইলি সামরিক অভিযানের সংবাদ সংগ্রহের সময়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান।

এ ব্যাপারে ফিলিস্তিনিদের সাথে যৌথ তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে ইসরাইল। কিন্তু ফিলিস্তিনিরা, যাদের হাতে বুলেটটি রয়েছে, তারা এ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে বলছে যে, তারা ইসরাইলকে বিশ্বাস করে না। তারা এও জানিয়েছে যে, তাদের নিজস্ব তদন্ত পরিচালনা করছে তারা এবং ইসরাইল ছাড়া যেকোনো দেশের সঙ্গে সহযোগিতা করতেও তারা প্রস্তুত।
গত সপ্তাহে, ইসরাইল-এর সামরিক বাহিনীর প্রকাশিত একটি প্রাথমিক তদন্তের ফলাফলে, আবু আকলেহ-এর মৃত্যুর দুটি সম্ভাব্য কারণের কথা বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিস্তারিত জানতে চাওয়া হলে, সামরিক কর্মকর্তারা বলেছেন যে, তদন্তকারীরা একটি নির্দিষ্ট অস্ত্রের ওপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করেছে।

গোলাগুলির ঘটনাটিতে বিশ্বজুড়ে নিন্দা ও উদ্বেগের ঝড় বয়ে গেছে। ইসরাইলও তাদের পুলিশের আচরণের জন্য ব্যাপকভাবে সমালোচিত হয়েছে। ইসরাইল-এর পুলিশ ১৩ মে শিরিনের শেষকৃত্যে উপস্থিত ব্যক্তিদের ধাক্কা দিচ্ছিল, মারধর করছিল। ফলে, বহনকারীদের কাঁধ থেকে শিরিনের কফিন প্রায় পড়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছিল।

XS
SM
MD
LG