অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মুসলিম সন্দেহে হিন্দু বৃদ্ধকে মারধর, মৃত্যু; গ্রেফতার অভিযুক্ত বিজেপি কর্মী


মুসলিম সন্দেহে হিন্দু বৃদ্ধকে মারধর, মৃত্যু; গ্রেফতার অভিযুক্ত বিজেপি কর্মী

‘আপনি কি মহম্মদ?’ প্রশ্ন করে সঠিক উত্তর পাওয়া যায়নি। কারণ যাকে প্রশ্নটা করা হয়, তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন। এরপরই শুরু হয় বেধড়ক মারধর। মারাই যান ওই বৃদ্ধ। এই ঘটনায় অভিযুক্ত বিজেপি কর্মীকে শনিবার গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ভারতের মধ্যপ্রদেশের। সেখানকার একটি ভিডিওতে দেখা যায় এক বিজেপি কর্মী মানসিক ভারসাম্যহীন বৃদ্ধকে মারধর করছেন। ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকে ব্যাপক শোরগোল শুরু হয়। মারের চোটে ওই বৃদ্ধ প্রাণ হারিয়েছেন বলে অভিযোগ ওঠে। প্রবল জনরোষের মাঝে অবশেষে হাতকড়া পরতে হল দীনেশ কুশওয়াহা নামের বিজেপির ওই কর্মীকে।

স্টেট হোম মিনিস্টার নরোত্তম মিশ্র জানিয়েছেন মধ্যপ্রদেশের ওই সংশ্লিষ্ট এলাকায় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে খুন ও অবহেলায় মৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, মুসলিম সন্দেহে মারধরে যে বৃদ্ধ মারা গিয়েছেন তিনি মুসলিম ছিলেন না। তার নাম ছিল ভানওয়ারলাল জৈন। তিনি একজন হিন্দু। গত ১৫ মে থেকে তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। তল্লাশি চালালে তার মৃতদেহ উদ্ধার হয়।

ভাইরাল ভিডিওতে দেখা গিয়েছিল তার নাম মহম্মদ কিনা বারবার সেই প্রশ্ন করা হচ্ছে। উত্তর দিতে না পারলেই গালে সপাটে থাপ্পড়। ঠিক করে নাম বলার জন্যেও জোর করা হচ্ছিল ওই বৃদ্ধকে।

XS
SM
MD
LG