অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কাবুলের মসজিদে বিস্ফোরণ, আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলে অন্তত ১৪ জনের প্রাণহানি


বোমা বিস্ফোরণে হতাহতদের স্বজনরা মাজারে শরীফের একটি হাসপাতালের বাইরে সমবেত হয়েছেন। মে ২৫,২০২২

তালিবান জানিয়েছে যে বুধবার আফগানিস্তানে উপর্যুপরি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। রাজধানী কাবুলে একটি মসজিদের ভেতরে এক বিস্ফোরণে কমপক্ষে পাঁচজন মুসল্লি নিহত হয়েছেন এবং সে দেশের উত্তরাঞ্চলে মিনিভ্যানে তিনটি বোমা বিস্ফোরণে নয় জন যাত্রী প্রাণ হারিয়েছেন।

কাবুলের জরুরি হাসপাতাল জানিয়েছে তারা ,মসজিদের বোমার ঘটনায় পাঁচজন নিহত ছাড়াও আরো ১৭ জন আহত ব্যক্তিকে ভর্তি করেছে। কাবুলে তালিবান পুলিশের মুখপাত্র খালিদ জাদরানের তথ্য অনুযায়ী ঐ শহরের কেন্দ্রস্থলে পুলিশ ডিস্ট্রিক্ট ৪ এ অবস্থিত হজরত জাকারিয়া মসজিদে ঐ বিস্ফোরণ সম্পর্কে আর বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি। জারদান বলেন, মাগরিবের নামাজের জন্য লোকজন যখন মসজিদের ভেতরে ছিলেন তখনই এই বিস্ফোরণটি ঘটে।তিনি আরো বলেন যে তাঁরা হালনাগাদ খবরের অপেক্ষায় রয়েছেন।

বালখ প্রদেশে তালিবান নিযুক্ত মুখপাত্র মোহাম্মদ আসিফ ওয়াজিরি বলছেন উত্তরাঞ্চলের মাজারে শরিফ শহরে মিনিভ্যানের ভেতরে বিস্ফোরক রাখা হয়। তিনি বলেন ঐ বিস্ফোরণ নয় জন নিহত এবং ১৫ জন আহত হয়। একজন পুলিশ কর্মকর্তা, যিনি তাঁর নাম প্রকাশ করেননি কারণ সংবাদ মাধ্যমের কাছে বিস্তারিত কিছু জানানোর অনুমতি তাঁর নেই , বলেন মাজারে শরিফে হতাহতের মধ্যে প্রায় সকলেই সংখ্যালঘু শিয়া মুসলমান।

এই সব বিস্ফোরণের দায় তাৎক্ষণিক ভাবে কেউই স্বীকার করেনি তবে ইসলামিক স্টেট গোষ্ঠীর আঞ্চলিক সহযোগী , ইসলামিক স্টেট খোরাসান গ্রুপ বা আইসিস-কের বৈশিষ্ট ছিল এই হামলায়।

২০১৪ সাল থেকে আইসিস-কে আফগানিস্তানে তাদের তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে এবং তালিবানের এই নতুন শাসকদের কাছে তাদেরকে সবচেয়ে বড় নিরাপত্তার চ্যালেঞ্জ বলে মনে করা হচ্ছে। গত আগস্টে ক্ষমতা দখলের পর থেকে তালিবান আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলে আই এস সদরদপ্তরের উপর ঢালাও অভিযান চালিয়েছে।

XS
SM
MD
LG