অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিশ্বব্যাপী দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধির মধ্যে বাংলাদেশের জনগণকে মিতব্যয়ী হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ ও করোনা মহামারির কারণে, বিশ্বব্যাপী উচ্চ মুদ্রাস্ফীতি ও দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধির মধ্যে, বাংলাদেশের জনগণকে মিতব্যয়ী হওয়ার পদক্ষেপ নিতে আহ্বান জানিয়েছেন, দেশটির প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শেখ হাসিনা বলেন, “হ্যাঁ, এটা সত্য জিনিসপত্রের দাম কিছুটা বেড়েছে। তবে দাম কতটা বাড়বে তা এখনও অনিশ্চিত। এটা শুধু বাংলাদেশে নয়, সারা বিশ্বে। বরং আমরা এগুলো অন্তত (কিছু পরিমাণে) নিয়ন্ত্রণে রাখতে সক্ষম হয়েছি। আমরা আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা করছি।”

মঙ্গলবার (৭ জুন) ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস উপলক্ষে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক আলোচনা সভায়, ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে, এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। সভায় সভাপতিত্বও করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “এই যুদ্ধ দ্রুত শেষ হবে বলে মনে হয় না। আমাদের সবাইকে মিতব্যয়ী হতে হবে। আমাদের মনোযোগ দিতে হবে যাতে খাবার কোনোভাবেই নষ্ট না হয়।”

তিনি বলেন, “পণ্য পরিবহনের জন্য জাহাজ ভাড়া ৮০০ ডলার থেকে বেড়ে ২৫০০ থেকে ৩০০০ ডলার হয়েছে।”

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বাংলাদেশি পোশাকের রপ্তানি বাজারে মানুষের ক্রয়ক্ষমতা হ্রাসের কঠিন সময়ে, এই খাতে কোনো অস্থিরতা তৈরি হলে তারা (শ্রমিকরা) চাকরি হারাতে পারেন।” তিনি বলেন, “কারও কথায় কোনো ধরনের অস্থিরতা সৃষ্টি হলে, তা শুধু দেশের নয়, শ্রমিকদেরও ক্ষতি করবে। এটা সবাইকে মাথায় রাখতে হবে। আমি মনে করি বিষয়টি শ্রমিক ও তাদের নেতাদের জানানো উচিত।”

শেখ হাসিনা বলেন, “শ্রমিক নেতারা কোনো সমস্যায় পড়বে না। কারণ তারা উসকানিদাতাদের কাছ থেকে ভালো পরিমাণ অর্থ পাবে। কিন্তু, শ্রমিকদের ভাগ্যে কী হবে? রাস্তায় নামলে তারা ক্ষতিগ্রস্ত হবে।”

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “তার সরকার বিভিন্ন সময়ে পোশাক শ্রমিকদের বেতন বৃদ্ধি করেছে। একজন শ্রমিক এখন মাসে আট হাজার থেকে ১০ হাজার টাকা এবং অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা পান। আগে বেতন ছিল মাত্র এক হাজার ৬০০ টাকা।”

উল্লেখ্য, ১৯৬৬ সালের ৭ জুন, বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে, ছয় দফা দাবির ভিত্তিতে পাকিস্তানিদের বিরুদ্ধে ব্যাপক আন্দোলন শুরু করেছিলেন।

XS
SM
MD
LG