অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বন্যাকবলিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন


পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন

বন্যাকবলিত মানুষদের সহায়তা কাজে যুক্ত হওয়ার জন্য এবং বন্যার পানিতে আটকে পড়াদের উদ্ধারে, সরকারের সঙ্গে হাত মেলাতে সবাইকে আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “প্রশাসন বন্যাকবলিত অঞ্চলে পানিবন্দী মানুষকে উদ্ধার করে, নিকটবর্তী আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক স্পিডবোট ও নৌযান মোতায়েন করছে।”

শুক্রবার (১৭ জুন) পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজ থেকে দেয়া এক ভিডিও বার্তায়, সিলেট অঞ্চলের সব বন্যা দুর্গত মানুষের জন্য সরকারি সহায়তা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

ত্রাণ ও শুকনো খাবারের কোনো ঘাটতি নেই বলে উল্লেখ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

আব্দুল মোমেন বলেন, “এসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সেখানকার শিক্ষার্থীদের মধ্যে উদ্বেগ ছিল। আপাতত তা স্থগিত করা হয়েছে। সিলেট সিটি করপোরেশন কুমারগাঁও বিদ্যুৎ সাবস্টেশনকে বন্যার হাত থেকে রক্ষা করতে না পাড়ায় অনেক এলাকায় বিদ্যুৎ বিঘ্নিত হয়েছে।”

মোমেন বলেন, “সংশ্লিষ্ট সব মন্ত্রণালয় যৌথভাবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে। এটি (বন্যা) আমাদের একটি শিক্ষা দিচ্ছে, কারণ আমরা খাল, হাওর, বিলের মতো জলাশয়গুলো দখল করেছি। যার কারণে বন্যা পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হয়েছে, তাই এগুলোর ড্রেজিংয়ের প্রয়োজন।”

এদিকে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় সিলেট, সুনামগঞ্জ ও নেত্রকোনা জেলার বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হতে পারে বলে জানিয়েছে বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র বলেছে, “দেশের ১৩টি নদ-নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে এবং আগামী ২৪ ঘণ্টায় তিস্তার পানি বিপদসীমার কাছাকাছি বা ওপর দিয়ে বয়ে যেতে পারে। এতে, লালমনিরহাট, নীলফামারী, রংপুর ও কুড়িগ্রাম জেলার নিম্নাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হতে পারে।”

XS
SM
MD
LG