অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাইডেনের সফরের আগে ইসরাইলি, ফিলিস্তিনিদের উত্তেজনা প্রশমিত করার আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র


ইসরাইল অধিকৃত পশ্চিম তীরে, হেব্রনের দক্ষিণে, মাসাফের ইয়াত্তায়, ইসরাইলি উচ্চ আদালত ৮টি ফিলিস্তিনি গ্রাম ধ্বংস করার জন্য পথ প্রশস্ত করার পরে একজন ফিলিস্তিনি ব্যক্তি নামাজ পড়ার সময় ইসরাইলি সেনারা পাহারা দিচ্ছে। ১৭ জুন, ২০২২।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের আগামী মাসে সফরের আগে ইসরাইল এবং ফিলিস্তিনিদের মধ্যে ওই অঞ্চলে “স্পষ্ট এবং বিপজ্জনক” উত্তেজনা নিয়ে সোমবার যুক্তরাষ্ট্র উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

বাইডেন ইসরাইল এবং পশ্চিম তীর সফর করবেন এবং তারপরে ১৩ জুলাই থেকে ১৬ জুলাই পর্যন্ত সৌদি আরবে অবস্থান করবেন।

হোয়াইট হাউজ বলছে, প্রেসিডেন্ট সেই দেশের “নিরাপত্তা, সমৃদ্ধি এবং বৃহত্তর অঞ্চলের সঙ্গে ক্রমবর্ধমান সংহতি ” নিয়ে আলোচনা করতে ইসরাইলি নেতাদের সাথে সাক্ষাৎ করার পরিকল্পনা করেছেন। ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তাদের সাথে দেখা করতে পশ্চিম তীরেও যাবেন বাইডেন।

জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের উপ-রাষ্ট্রদূত রিচার্ড মিলস বলেছেন, সফরের সময় বাইডেন “শান্তির আহ্বান জানাবেন এবং ইসরাইলি ও ফিলিস্তিনি উভয়ের জন্য নিরাপত্তা, স্বাধীনতা এবং সুযোগের সম পদক্ষেপের উপায়গুলো অন্বেষণের আহ্বান জানাবেন। ”

২০২০ সালে ট্রাম্প প্রশাসন তাদের মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনা উন্মোচিত করার পর থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ফিলিস্তিনের সম্পর্কের অবনতি ঘটে। ফিলিস্তিনিরা এ পরিকল্পনাকে সরাসরি প্রত্যাখ্যান করে বলেছিল, এটিতে ইসরাইলের প্রতি ব্যাপকভাবে পক্ষপাত প্রদর্শন করা হয়েছে। এ পরিকল্পনায় পূর্ব জেরুজালেমকে রাজধানী করে একটি সার্বভৌম, সংলগ্ন রাষ্ট্র হিসেবে ফিলিস্তিনের কথা উল্লেখ করা হয়নি। ট্রাম্প প্রশাসন ফিলিস্তিনিদের ক্ষুব্ধ করে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে সরিয়ে নিয়েছিল। বাইডেন সরকার এ পদক্ষেপের সমালোচনা করলেও এটি বাতিল করেননি।

জাতিসংঘ বলছে, সাম্প্রতিক মাসগুলোতে পূর্ব জেরুজালেমসহ পশ্চিম তীরে এবং ইসরাইলে সহিংসতা বেড়েছে। জাতিসংঘ বলেছে, মার্চের মাঝামাঝি থেকে ইসরাইলি বাহিনীর সাথে বিক্ষোভ ও সংঘর্ষে বেশ কয়েকটি শিশুসহ ৪৯ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। একই সঙ্গে ইসরাইলের অভ্যন্তরে হামলায় ১১ জন ইসরাইলি এবং ৩ জন বিদেশী নাগরিক নিহত হয়েছে।

ভয়েস অফ আমেরিকার প্রতিবেদক আনিটা পাওয়েল এ প্রতিবেদন তৈরিতে সহায়তা করেছেন।

XS
SM
MD
LG