অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাশিয়া লিসিশ্যান্সক দখলের পর শহরটি পুনরুদ্ধারের অঙ্গীকার করলেন জেলেন্সকি


১৭ জুন ২০২২ তারিখে লিসিশ্যান্সক-এ সামরিক হামলায় বিধ্বস্ত এক ভবনের পাশ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন এক ব্যক্তি।

লিসিশ্যান্সক থেকে ইউক্রেন নিজেদের বাহিনী প্রত্যাহার করে নেওয়ার পর, আরও অত্যাধুনিক অস্ত্রের সহায়তায় ঐ এলাকা পুনরায় জয় করার অঙ্গীকার করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকি। পূর্বাঞ্চলের লুহান্সক প্রদেশে এটিই ছিল ইউক্রেনের দখলে থাকা সর্বশেষ এলাকা।

তার প্রাত্যহিক সান্ধ্যকালীন বক্তব্যে রবিবার জেলেন্সকি বলেন যে, ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের ডনব্যাস অঞ্চলে রাশিয়া নিজেদের শক্তি প্রয়োগ করছে। তিনি আরও বলেন, পশ্চিমা মিত্রদের সরবরাহ করা দূরপাল্লার অস্ত্র ব্যবহার করে ইউক্রেনের বাহিনী জবাব দিবে। যুক্তরাষ্ট্রের সরবরাহ করা হাই মোবিলিটি আর্টিলারি রকেট সিস্টেম এমন অস্ত্রের মধ্যে একটি।

জেলেন্সকি বলেন, “এই বাস্তবতা যে আমরা আমাদের সৈন্য, আমাদের মানুষদের জীবন রক্ষা করি, সেটি একই রকম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আমরা আবারও দেয়ালগুলো গড়ে তুলব, আমরা আবারও ঐ ভূমি জয় করব, এবং সবার আগে মানুষজনকে রক্ষা করতে হবে।”

ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী রবিবার জানায় যে, তারা লিসিশ্যান্সক থেকে নিজেদের অবশিষ্ট যোদ্ধাদের প্রত্যাহার করে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, কারণ রাশিয়ার অধিক সংখ্যক সৈন্য ও উন্নততর অস্ত্রের মুখে প্রতিরক্ষার চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া “মারাত্মক পরিণতি ডেকে আনবে”।

রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সহায়তার জন্য আরও অত্যাধুনিক অস্ত্র সরবরাহ করতে বারবার মিত্রদের অনুরোধ করেছে ইউক্রেনের কর্মকর্তারা।

লুহান্সকের গভর্নর সের্হি হাইদাই রয়টার্সকে বলেন যে, লিসিশ্যান্সক হারানো তেমন গুরুতর কিছু না। তিনি আরও বলেন যে, ইউক্রেনের সামগ্রিক যুদ্ধে জয় প্রয়োজন, শহরটির লড়াইয়ে নয়।

সোমবার তিনি বলেন, “এটা খুবই কষ্টদায়ক, তবে এটা যুদ্ধে পরাজয় নয়।”

XS
SM
MD
LG