অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জি-২০ মন্ত্রীদের বৈঠকে ইউক্রেন বিষয়ে তেমন কোনো অগ্রগতি হয়নি


যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন ইন্দোনেশিয়ার বালিতে জি-২০ পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকের সময় আর্জেন্টিনার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সান্তিয়াগো ক্যাফিয়েরোর সাথে কথা বলছেন। ৮ জুলাই, ২০২২
যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন ইন্দোনেশিয়ার বালিতে জি-২০ পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকের সময় আর্জেন্টিনার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সান্তিয়াগো ক্যাফিয়েরোর সাথে কথা বলছেন। ৮ জুলাই, ২০২২

শুক্রবার বালিতে অনুষ্ঠিত জি-২০ আলোচনায় প্রাধান্য পেয়েছে ইউক্রেনের যুদ্ধ এবং জ্বালানি ও খাদ্য সরবরাহে এর প্রভাব ।

জি-২০ আয়োজক দেশ, যুদ্ধ এবং ক্রমবর্ধমান খাদ্য ও জ্বালানি শক্তির দামের উপর এর প্রভাব নিয়ে আলোচনা করার জন্য মন্ত্রীদের "এগিয়ে যাওয়ার পথ খুঁজে বের করার" আহ্বান জানিয়েছে।

ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেতনো মারসুদি বৈঠকের শুরুতে বহুপাক্ষিকতা ও আস্থার আহ্বান জানিয়ে জাতিসংঘের সনদের প্রসঙ্গ উত্থাপন করে বলেন, “শীঘ্রই যুদ্ধের অবসান ঘটানো এবং যুদ্ধের ময়দানে নয়, আলোচনার টেবিলে আমাদের মতবিরোধ নিষ্পত্তি করা আমাদের দায়িত্ব।" .

পররাষ্ট্র মন্ত্রীরা আফ্রিকা, মধ্যপ্রাচ্য এবং অন্যত্র মারাত্মক খাদ্য ঘাটতি নিয়ে এবং ইউক্রেন থেকে শস্যের চালান পাওয়ার বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। কিন্তু আলোচনা তীক্ষ্ণ উত্তেজনাপূর্ণ ছিল। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন এবং রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ একই টেবিলে বসেছিলেন, যদিও তারা সরাসরি কথা বলেননি।

বৈঠকে রাশিয়ার কথা বলার সময় আসার সাথে সাথেই লাভরভ পশ্চিমা মন্ত্রীদের অভিযুক্ত করেন, ইউক্রেনের পরিস্থিতির জন্য রাশিয়ার ফেডারেশনের উন্মত্ত সমালোচনার জন্য।"

প্রথম অধিবেশনের পর ল্যাভরভ সাংবাদিকদের বলেন, "আপনারা জানেন, আমরা সব যোগাযোগ ত্যাগ করিনি। এটা করেছে যুক্তরাষ্ট্র এবং আমরা বৈঠকের পরামর্শ দেওয়ার পিছনে দৌড়াচ্ছি না। যদি তারা কথা বলতে না চায়, এটা তাদের ব্যাপার।”

ল্যাভরভ শুক্রবার দুবার বৈঠক থেকে বেরিয়ে গিয়েছিলেন – প্রথমবার যখন , জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক বহুপাক্ষিকতা জোরদার করার বিষয়ে একটি অধিবেশনে বক্তৃতা করেছিলেন এবং দ্বিতীয়বার ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দ্য মিত্রো কুলেবা ভিডিও লিঙ্কের মাধ্যমে খাদ্য ও শক্তি নিরাপত্তা বিষয়ক অধিবেশনে ভাষণ দেওয়ার ঠিক আগে।

একজন পশ্চিমা কর্মকর্তার মতে, একটি পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন মস্কোকে ইউক্রেনীয় শস্য বিশ্বের জন্য ছেড়ে দেওয়ার আহ্বান জানান।

কর্মকর্তা বলেন, "তিনি সরাসরি রাশিয়াকে সম্বোধন করে বলেছেন, 'আমাদের রাশিয়ার বন্ধুদের উদ্দেশ্যে বলছি, ইউক্রেন আপনার দেশ নয়। এর শস্য আপনার শস্য নয়। কেন বন্দর আটকাচ্ছেন? শস্য বের করতে দেওয়া উচিত আপনাদের''।

XS
SM
MD
LG