অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে ঈদুল আজহা উদযাপন, বিশ্ব সম্প্রদায়ের মধ্যে শান্তি ও সম্প্রীতি প্রার্থনা


বাংলাদেশে ঈদুল আজহা উদযাপন
বাংলাদেশে ঈদুল আজহা উদযাপন

সর্বশক্তিমান আল্লাহর নামে প্রার্থনা এবং পশু কোরবানির মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের মুসলমানরা রবিবার (১০ জুলাই) তাদের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা উদযাপন করছে। সারাদেশের মসজিদ ও ঈদগাহ ময়দানে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। যেখানে মুসল্লিরা বিশ্ব সম্প্রদায়ের মধ্যে শান্তি ও সম্প্রীতি প্রার্থনা করেন।

রাজধানী ঢাকায়, জাতীয় ঈদগাহে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে একাধিক জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বঙ্গভবনে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিয়ে ঈদের নামাজ আদায় করেন।

ঈদের নামাজের পর, আল্লাহর নামে পশু কোরবানি করা হয়। আল্লাহর প্রতি পূর্ণ ভালবাসা প্রদর্শনের জন্য নবী ইব্রাহিম (আ.) তাঁর প্রিয় পুত্র ইসমাইলকে কোরবানি দিতে উদ্যত হন। এতে সন্তুষ্ট হয়ে আল্লাহ ইব্রাহীম (আ.) কে তার খলিল (বন্ধু) হিসেবে গ্রহণ করেন। এই ঘটনাকে স্মরণ করে সারা বিশ্বের মুসলিমরা আল্লাহ তা’আলার সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য প্রতি বছর এই দিবসটি উদ্‌যাপন করেন।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদের পৃথক ঈদ-বাণীতে দেশবাসীকে আত্মত্যাগের চেতনায় একাত্ম হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

করোনা মহামারির কারণে গত দুই বছর স্থগিত থাকার পর, এবার কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়া মাঠে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। শোলাকিয়া মাঠে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল ৯টায়।

XS
SM
MD
LG