অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভিনিতসিয়ায় ভয়াবহ রুশ বিমানহামলা, জানিয়েছে ইউক্রেন


ইউক্রেনের ভিনিতসিয়ায় রুশ সামরিক হামলার স্থানে ধ্বংস হয়ে যাওয়া যানবাহন দেখা যাচ্ছে, ১৪ জুলাই ২০২২। (স্টেট ইমার্জেন্সি সার্ভিস অফ ইউক্রেনের প্রেস সার্ভিস/রয়টার্সের মাধ্যমে প্রাপ্ত)

ইউক্রেনের কর্মকর্তারা বলেছেন যে, ইউক্রেনের মধ্যাঞ্চলের ভিনিতসিয়া শহরে বৃহস্পতিবার রুশ ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হেনেছে। এতে অন্তত ১২ জন নিহত ও অপর ২৫ জন আহত হয়েছেন বলে জানানো হয়।

পুলিশ জানায়, শহরের কেন্দ্রে এক অফিস ভবনে তিনটি ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানে এবং ঐ এলাকার আবাসিক ভবনগুলোকে ক্ষতিগ্রস্ত করে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকি বলেন যে, নিহতদের মধ্যে একটি শিশুও রয়েছে।

টেলিগ্রাম ম্যাসেজিং অ্যাপে জেলেন্সকি লেখেন, “রাশিয়া প্রতিদিনিই বেসামরিক মানুষদের ধ্বংস করছে, ইউক্রেনের শিশুদের হত্যা করছে, এমন বেসামরিক স্থাপনায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাচ্ছে যেখানে কোন সামরিক লক্ষ্যবস্তু নেই। এটি উন্মুক্ত সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ছাড়া আর অন্য কি হতে পারে?”

বেসামরিক স্থাপনাকে লক্ষ্যবস্তু বানানোর অভিযোগ রাশিয়া অস্বীকার করেছে।

এদিকে, জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেস বুধবার বলেন যে, ২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়ার আক্রমণের পর থেকে গুদামে আটকে থাকা ইউক্রেনের লক্ষ লক্ষ টন শস্য রফতানির বিষয়ে, তুরস্ক ও জাতিসংঘের সাথে রাশিয়া ও ইউক্রেনের মাঝে এক চুক্তির বিষয়ে “মোটা দাগে সমঝোতা” হয়েছে।

এই চার পক্ষের মধ্যে ইস্তাম্বুলে অনুষ্ঠিত ঐ আলোচনা বিষয়ে গুতেরেস উল্লেখ করে বলেন, “অবশ্যই এটা প্রথম বৈঠক ছিল।” তিনি আরও বলেন, “অগ্রগতি অত্যন্ত উৎসাহব্যঞ্জক ছিল। এখন, প্রতিনিধিরা তাদের রাজধানীতে ফিরে আসছেন, এবং আমরা আশা করছি পরবর্তী পদক্ষেপগুলোর ফলে আমরা একটি আনুষ্ঠানিক চুক্তি সম্পাদন করতে পারবো ।”

কৃষ্ণ সাগরের ওডেসা বন্দরের গুদামগুলোতে ইউক্রেনের ২ কোটি টনের বেশি শস্য আটকা পড়ে আছে। রুশ অবরোধের কারণে ডজনকয়েক জাহাজও আটকা পড়ে গিয়েছে। তুরস্ক বলেছে যে, তাদের কাছে ঐ এলাকায় অপেক্ষারত ২০টি বাণিজ্যিক জাহাজ রয়েছে, যেগুলো দ্রুত শস্য বোঝাই করে বিশ্ববাজারের জন্য রওনা দিতে পারবে।


XS
SM
MD
LG