অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আসিয়ান প্রেসিডেন্টের সমর্থন চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল মোমেন


আসিয়ানের বর্তমান প্রেসিডেন্ট ও কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেন-এর সঙ্গে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনের সৌজন্য সাক্ষাৎ।
আসিয়ানের বর্তমান প্রেসিডেন্ট ও কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেন-এর সঙ্গে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনের সৌজন্য সাক্ষাৎ।

আসিয়ানের বর্তমান প্রেসিডেন্ট ও কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেন-এর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। এসময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন, বাংলাদেশ থেকে রোহিঙ্গাদের তাদের নিজ দেশ মিয়ানমারে প্রত্যাবাসন ত্বরান্বিত করার জন্য, আসিয়ানের বর্তমান চেয়ারম্যান হিসেবে কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রীর সমর্থন কামনা করেন।

নমপেনে শুক্রবার (১৫ জুলাই) অনুষ্ঠিত আলোচনায়, তারা বিদ্যমান দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের প্রতি সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং আগামী দিনে তা আরও জোরদার করার অঙ্গীকার করেন। দু’দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্কের ৩০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আগামী বছর কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রীকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান ড. মোমেন।

সেক্টরাল ডায়ালগ পার্টনারশিপে বাংলাদেশের প্রার্থীতার পক্ষে কম্বোডিয়ার সমর্থনের জন্যও অনুরোধ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন।পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন ও হুন সেন মহামারি এবং ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে চলমান দ্বন্দ্ব থেকে উদ্ভূত চ্যালেঞ্জ নিয়ে মতবিনিময় করেন।

দুই নেতাই ক্রমবর্ধমান খাদ্য ও জ্বলানি নিরাপত্তাহীনতার বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তারা বলেছেন, এই সংকট জনগণকে প্রভাবিত করছে, বিশেষ করে উন্নয়নশীল বিশ্বের জনগণের ওপর চাপ সৃষ্টি করছে।

কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেন এবং বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন, বিশ্বে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখার জন্য সংলাপ ও সমস্যার শান্তিপূর্ণ সমাধানের গুরুত্বের ওপর জোর দেন।

XS
SM
MD
LG