অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশের দুর্যোগ প্রস্তুতির উন্নয়নে ৫০ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক


বাংলাদেশের বন্যা কবলিত অঞ্চল

বাংলাদেশের বন্যাপ্রবণ ১৪ জেলায় দুর্যোগ প্রস্তুতির উন্নয়নে, ৫০ কোটি ডলার ঋণ অনুমোদন করেছে বিশ্বব্যাংক। এই উদ্যোগে, অন্তত সাড়ে ১২ লাখ মানুষ উপকৃত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

শুক্রবার (১৫ জুলাই) বিশ্বব্যাংক এক বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে, “অ্যাডাপটেশন অ্যান্ড ভালনারেবিলিটি রিডাকশন কর্মসূচির আওতায়, স্থিতিস্থাপক অবকাঠামো প্রকল্পটির মাধ্যমে ৫০০ টিরও বেশি বহুমুখী বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র, যোগাযোগ ব্যবস্থা,জলবায়ু-সহনশীল মানুষদের জন্য বিভিন্ন অবকাঠামো নির্মাণ করা হবে। এই প্রকল্প বাংলাদেশকে আকস্মিক বন্যার ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করবে।”

স্বাভাবিক সময়ে আশ্রয়কেন্দ্রগুলো প্রাথমিক বিদ্যালয় হিসেবে ব্যবহার করা হবে। এগুলোতে সৌর শক্তি ব্যবস্থা,পানি, স্যানিটেশন, স্বাস্থ্যবিধি এবং নারী ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জন্য সকল সুবিধা থাকবে।

প্রকল্পটি বন্যার প্রস্তুতি ও প্রতিক্রিয়া এবং আচরণগত পরিবর্তনের প্রতি সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য ভুক্তভোগী ও সরকারি সংস্থাগুলোর সক্ষমতা জোরদার করতে সহায়তা করবে।

বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি টেম্বন বলেছেন, “সিলেটের বন্যা পরিস্থিতি জলবায়ু পরিবর্তনের ক্রমবর্ধমান ঝুঁকি, অপ্রত্যাশিত ও তীব্র প্রাকৃতিক দুর্যোগের একটি স্পষ্ট বার্তা।”

মার্সি টেম্বন আরও বলেন, “উপকূলীয় অঞ্চলে দুর্যোগ ঝুঁকি ব্যবস্থাপনার উন্নতির জন্য আমাদের পাঁচ দশকের দীর্ঘ অংশীদারিত্ব রয়েছে। এই প্রকল্পও বাংলাদেশকে উপকূলীয় বন্যাপ্রবণ এলাকায় দুর্যোগ প্রস্তুতির উন্নতিতে সাহায্য করবে।”

XS
SM
MD
LG