অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতে 'ইসলাম বিরোধী' টুইটের অভিযোগে হরিয়ানায় বিজেপি-র সোশ্যাল মিডিয়া প্রধানকে অপসারণ


ফাইল - ভারতের কলকাতায় মুসলমানরা মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সাঃ) সম্পর্কে কটূক্তির জন্য ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সদস্যের গ্রেপ্তারের দাবীতে বিক্ষোভ সমাবেশ করছে। ১৪ জুন, ২০২২।

পাঁচ বছর আগের কথিত ইসলাম বিরোধী টুইটের জন্য উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য হরিয়ানায় বিজেপির সোশ্যাল মিডিয়া প্রধানকে সরিয়ে দিয়েছে ভারতের ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টি। তবে ভারতীয় মুসলমানরা অরুণ যাদবকে গ্রেপ্তারের দাবি করছে।

২০১৭ সালের করা ওই টুইটে মক্কার কাবা শরীফকে হুইস্কির গ্লাসে একটি বরফের কিউবের সাথে তুলনা করেন যাদব।

জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে, কিছু অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট এবং মুসলিম নেতা পাঁচ বছরের পুরনো টুইটের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে এবং যাদবের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানালে, বিজেপি তাকে গত ৭ জুলাই সরিয়ে দেয়।

দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য তেলেঙ্গানার একজন মুসলিম নেতা সৈয়দ আজহারউদ্দিন ভিওএ-কে বলেছেন, “কাবাকে উদ্দেশ করে অরুণ যাদবের অপমানজনক মন্তব্য সমস্ত মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করেছে। সারাদেশের সম্প্রদায় দাবি করছে, ইসলামের পবিত্রতম স্থানের নোংরা চিত্রায়নের জন্য তাকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করা হোক এবং আদালতে তুলে উপযুক্ত বিচার করা হোক।”

তিনি বলেন, “কিন্তু আমরা খুবই হতাশ, কারণ যাদবের বিরুদ্ধে সরকারের ব্যবস্থা নেওয়ার কোনও লক্ষণ এখনো দেখা যাচ্ছে না”।

২০১৪ সালে নরেন্দ্র মোদি ভারতের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগে, তার দল তার আদর্শ এবং রাজনৈতিক বার্তা প্রচার এবং জনসমর্থন প্রসারিত করার লক্ষ্যে, সারা দেশে তথ্য প্রযুক্তি বা আইটি সেল নামে পরিচিত সামাজিক মিডিয়া শাখা স্থাপন করেছিল।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বিরোধী দলের নেতাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার ছড়ানোর জন্য এই সেলগুলোকে দায়ী করা হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়া ফ্যাক্ট-চেকাররা প্রায়শই ভুয়া খবর সম্বলিত কন্টেন্ট প্রকাশ করছে, যা বিজেপির আইটি সেল নেটওয়ার্ক দ্বারা ছড়িয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

XS
SM
MD
LG