অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাশিয়ার গ্যাস সরবরাহ বন্ধের হুমকির প্রেক্ষিতে ইইউ গ্যাসের ব্যবহার কমানোর আহ্বান জানিয়েছে


ইউরোপীয় কমিশনের সভাপতি আরসুলা ভন ডার লেইন (বাঁয়ে) এবং ইউরোপিয়ান গ্রীন ডিলের ইউরোপীয়ান কমিশনার ফ্রান্স টিমারম্যানস ব্রাসেলসে ইইউ সদর দপ্তরে একটি সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন। ২০ জুলাই, ২০২২।

রাশিয়া প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করতে পারে এমন সম্ভাবনার জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়ন প্রস্তুতি নিচ্ছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের অনেক সদস্য রাষ্ট্রে বাড়িঘর উষ্ণ রাখা, বিদ্যুৎ উৎপাদন এবং কারখানা সচল রাখার জন্য প্রাকৃতিক গ্যাস প্রয়োজন।

বুধবার এক বিবৃতিতে ইইউ কমিশন দেশগুলোকে স্বেচ্ছায় তাদের প্রাকৃতিক গ্যাসের ব্যবহার কমাতে এবং জরুরি অবস্থার ক্ষেত্রে ইইউ-কে প্রাকৃতিক গ্যাস ব্যবহার হ্রাসের নিয়ম আরোপ করার ক্ষমতা দিতে বলেছে।

এর লক্ষ্য আগস্ট থেকে মার্চের শেষ পর্যন্ত ১৫ শতাংশ চাহিদা কমানো।

ইইউ কমিশনের প্রেসিডেন্ট ভন ডার লেইন বলেছেন, “রাশিয়া আমাদের ব্ল্যাকমেইল করছে। রাশিয়া জ্বালানিকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে। এবং রাশিয়ার গ্যাসের আংশিক বা সম্পূর্ণ সরবরাহ বন্ধের মতো যেকোনো ঘটনার জন্য ইউরোপকে প্রস্তুত থাকতে হবে। ”

ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে রাশিয়া ইউক্রেনে আক্রমণ শুরু করার পর থেকে ইইউ দেশগুলো রাশিয়ার কয়লা এবং বেশিরভাগ রাশিয়ার তেল আমদানি বন্ধ করে দিয়েছে। ইইউ গ্যাসের অন্যান্য উৎসগুলো খুঁজে বের করার চেষ্টা করেছে, পাশাপাশি রাশিয়ার সরবরাহের ওপর নির্ভরতা কমানোর জন্য শক্তির বিকল্প উৎসের ওপর নির্ভরতা বাড়ানোর পরিকল্পনা করেছে।

কিন্তু শীতের আগমনের পরে এই প্রচেষ্টাগুলো শক্তির চাহিদার সাথে সামঞ্জস্য রাখতে পারবে বলে মনে হচ্ছে না।

ইইউ কমিশনের বিবৃতিতে জনগণকে এখনই শক্তি সঞ্চয় করার আহ্বান জানিয়ে বলা হয়েছে, অন্যান্য জ্বালানি ব্যবহার করলে শীতকালে আরও বেশি গ্যাস পাওয়া যাবে।

ইইউ সদস্যরা আগামী মঙ্গলবার একটি বৈঠকে অনুরোধগুলো বিবেচনা করবে।

এ প্রতিবেদনের কিছু তথ্য এপি এবং রয়টার্স থেকে নেয়া হয়েছে।

XS
SM
MD
LG