অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর মধ্য আমেরিকার ৬০ জন সন্দেহভাজন দুর্নীতিবাজের তালিকা প্রস্তুত করেছে


পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন আমেরিকার শীর্ষ সম্মেলনের সময় একটি প্যানেল আলোচনায় অংশ নিচ্ছেন। ৭ জুন, ২০২২। ফাইল ছবি।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর মধ্য আমেরিকার ৪টি দেশে দুর্নীতি বা গণতন্ত্রকে অবমূল্যায়ন করার জন্য সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের সর্বসাম্প্রতিক তালিকায় ৬০ জন বর্তমান এবং প্রাক্তন কর্মকর্তার পাশাপাশি কিছু কর্পোরেট ব্যক্তির নাম দিয়েছে।

এই বছরের তালিকাটি বিশেষ করে রাজনীতিবিদ, বিচারক এবং অন্যান্যদের ওপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করেছে যারা গুয়াতেমালার আদালতে মামলা জমিয়ে রাখছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে । তা ছাড়া এই তালিকায় আরও রয়েছেন সেই সব বিচারক ও প্রসিকিউটর যারা নিকারাগুয়ায় গত বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে বিরোধী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের বিরুদ্ধে মামলার সঙ্গে জড়িত।

দুই বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রের আইন প্রণয়ন করার জন্য তালিকাটি প্রতিনিধি পরিষদের তৎকালীন সদস্য এলিয়ট এঙ্গেলের দ্বারা যুক্তরাষ্ট্রের তৎকালীন কংগ্রেসে সরবরাহ করা হয়েছিল। তালিকাভুক্ত ব্যক্তিরা সাধারণত যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের জন্য অযোগ্য হয়ে পড়ে এবং তাদের ভিসা বাতিল করা হয়।

তালিকায় এল সালভাদরের প্রাক্তন এবং বর্তমান কর্মকর্তাদের নাম রয়েছে। এর মধ্যে প্রেসিডেন্ট নায়েব বুকেলের প্রেস সচিব এবং প্রেসিডেন্টের আইনি উপদেষ্টাও রয়েছেন। তিনি সুপ্রিম কোর্টের ৫ জন ম্যাজিস্ট্রেট এবং অ্যাটর্নি জেনারেলকে অপসারণের পরিকল্পনা করেছিলেন।

গুয়াতেমালার প্রেসিডেন্ট আলেয়ান্দ্রো গিয়াম্মাত্তেই যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের দ্বারা তার অ্যাটর্নি জেনারেলের সমালোচনাকে প্রত্যাখ্যান করেছেন এবং তারা এটিকে দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে গুয়াতেমালার পশ্চাদপসরণ হিসেবে দেখছেন। এই তালিকায় দায়মুক্তির বিরুদ্ধে দেশটির নতুন বিশেষ কৌঁসুলির দুর্নীতির তদন্তে বাধা দেয়ার অভিযোগ রয়েছে।

বাইডেন প্রশাসন এল সালভাদরের বুকেলের সাথেও দ্বন্দ্বে লিপ্ত হয়েছে। তারা উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যে, ক্ষমতার ওপর তার শক্ত দখল দেশের গণতন্ত্রকে দুর্বল করেছে।

এই তালিকায় নিকারাগুয়ার প্রায় ২৪ জন প্রসিকিউটর এবং বিচারক রয়েছেন যারা ঐ সব মামলায় অংশ নিয়েছিলেন এবং এখন গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া ক্ষুণ্ণ করার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সরকার দ্বারা অভিযুক্ত হয়েছেন।

XS
SM
MD
LG