অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সংসদের চতুর্থ অনাস্থা ভোটে টিকে গেলেন থাই প্রধানমন্ত্রী


ফা্ইল ছবি, থা্ল্যইন্ডের প্রধানমন্ত্রী প্রয়ুথ চান-ওচাকে ২০২২ সালের ২৬ মে টোকিওতে এক সম্মেলনে মাইক্রোফোন ঠিক করতে দেখা যাচ্ছে।

শনিবার থাই প্রধানমন্ত্রী চ্যান-ওচা সংসদে একটি অনাস্থা ভোটে জয়লাভ করে নিজের পদ ধরে রেখেছেন। ১১ মাস পর অনুষ্ঠিতব্য সাধারণ নির্বাচনের আগে এটাই ছিল তার জন্য সর্বশেষ পরীক্ষা।

৬৮ বছর বয়সী সাবেক এই সেনাপ্রধান ২০১৪ সালে তাঁর নেতৃত্বাধীন একটি অভ্যুত্থানের পর থেকে তার মেয়াদ শেষ হওয়া অবধি মার্চ পর্যন্ত দেশটির নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী হিসেবে থাকছেন।

প্রয়ুথ তার পক্ষে মোট ২৫৬ টি ভোট পেয়েছিলেন, বিপক্ষে ছিল ২০৬ টি ভোট। ৯ জন ভোটদানে বিরত ছিলেন। তাকে ক্ষমতাচ্যূত করতে বিরোধীদের ৪৭৭ টি সংসদীয় ভোটের মধ্যে ২৩৯ টিরও বেশি প্রয়োজন ছিল ।

আগামী নির্বাচনের আগে ক্ষমতাসীন ১৭ দলীয় জোটের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অর্থনৈতিক অব্যবস্থাপনার অভিযোগ খন্ডনের জন্য প্রধানমন্ত্রী এবং মন্ত্রিসভার ১০ জন সদস্যকে চার দিন ধরে টেলিভিশনে সরাসরি প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী থাকার জন্য ২০১৯ সালে সংসদ তাকে নির্বাচিত করার পর থেকে এই নিয়ে চতুর্থবারের মতো প্রয়ুথের পারফরম্যান্সকে ভোটাভুটির মাধ্যমে যাচাই করা হলো। এই নির্বাচনের পরে বিরোধীরা অভিযোগ করেছিল যে, তাকে ক্ষমতায় রাখার জন্য পূর্বপরিকল্পিত নিয়মের অধীনে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। প্রয়ুথ অবশ্য এই দাবি প্রত্যাখ্যান করেছেন।

সাম্প্রতিক জনমত জরিপে দেখা গেছে যে তার জনপ্রিয়তা হ্রাস পাচ্ছে। তা সত্ত্বেও প্রয়ুথ বিজয়ী হবেন বলেই আশা করা হয়েছিল। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের কেউ কেউ এই নিন্দা প্রস্তাবকে পরবর্তী নির্বাচনের আগে জনসমর্থন লাভের জন্য বিরোধীদের একটি পদক্ষেপ হিসাবে দেখছেন।

কবে নাগাদ নির্বাচন ডাকা হবে, সে বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো ইঙ্গিত দেননি প্রয়ুথ।

XS
SM
MD
LG