অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

হাউজ স্পিকার পেলোসির সম্ভাব্য তাইওয়ান সফর নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করেছে চীন: এফটি


ফাইল ছবি: যুক্তরাষ্ট্রের হাউজ স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি ১৪ জুলাই, ২০২২ তারিখে ওয়াশিংটনের ক্যাপিটল হিলে তার সাপ্তাহিক সংবাদ সম্মেলন করেন। .

শনিবার ফিনান্সিয়াল টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত আগস্টে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির সম্ভাব্য তাইওয়ান সফরের বিষয়ে বাইডেন প্রশাসনকে ব্যক্তিগত ভাবে সতর্ক করে দিয়েছে চীন।

প্রতিবেদনে চীনা সতর্কবার্তার সাথে পরিচিত ছয়জনের উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয় যে, অতীতে বেইজিং যে হুমকি দিয়েছে এবারেরটি সেগুলোর চেয়ে উল্লেখযোগ্যভাবে শক্তিশালী ছিল। চীনের দাবি মতে, তখনও তারা তাইওয়ান নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পদক্ষেপ বা নীতিতে অসন্তুষ্ট ছিল। পরিস্থিতি সম্পর্কে অবগত বেশ কিছু লোকের উদ্ধৃতি দিয়ে ফিনান্সিয়াল টাইমস লিখেছে, গোপন এই বাগাড়ম্বর সম্ভাব্য সামরিক ব্যবস্থা নেয়ার আভাস দিচ্ছে।

চীন তাইওয়ানকে ঘিরে তাদের সামরিক তৎপরতা বাড়াচ্ছে, যাতে করে চীনের সার্বভৌমত্ব মেনে নিতে গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সরকারকে তারা চাপ দিতে পারে। তাইওয়ানের সরকার বলছে, দ্বীপটির দুই কোটি ৩০ লাখ মানুষই কেবল তাদের ভবিষ্যৎ নির্ধারণ করতে পারে। তারা শান্তি চায়, তবে হামলা চালানো হলে তারা নিজেদেরকে রক্ষা করবে।

গত ১৮ জুলাই ফিনান্সিয়াল টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, পেলোসি আগস্টে তাইওয়ান সফরের পরিকল্পনা করছেন।

এর একদিন পরেই চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রক সতর্ক করে জানায়, পেলোসির তাইওয়ান সফর চীনের সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখণ্ডতাকে মারাত্মকভাবে ক্ষুণ্ণ করবে এবং যুক্তরাষ্ট্রকে এই প্রতিক্রিয়ার ফল ভোগ করতে হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বুধবার জানান, চলতি মাসের শেষ নাগাদ চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে কথা বলার পরিকল্পনা রয়েছে তার।

পেলোসির তাইওয়ান সফরের সংবাদ সম্পর্কে সন্দেহ প্রকাশ করে বাইডেন সংবাদদাতাদের বলেন, "আমি মনে করি সামরিক বাহিনী ভালই জানে এখনই এটা করা ঠিক নয় , তবে এ ব্যাপারে তাদের প্রকৃত অবস্থান জানা নেই আমার।"

XS
SM
MD
LG