অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র কিয়েভ, চেরনিহিভ অঞ্চলে আঘাত হেনেছে


ইউক্রেনের কিয়েভের উপকণ্ঠে ভিশোরোদ জেলায় একটি সামরিক ইউনিটে রাশিয়ান বাহিনী ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানোর পরে সেখানে ধোঁয়া উঠতে দেখা যাচ্ছে। ২৪শে জুলাই, ২০২২

কয়েক সপ্তাহের মধ্যে প্রথমবারের মতো, রাশিয়া বৃহস্পতিবার ইউক্রেনের রাজধানী এলাকা, কিয়েভ এবং উত্তর চেরনিহিভ অঞ্চলে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে।

ইউক্রেনের একজন আঞ্চলিক গভর্নর বলেছেন, রাশিয়া কৃষ্ণ সাগর থেকে ছয়টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে কিয়েভ অঞ্চলে আক্রমণ করেছে, এতে ১৫ জন আহত হয়েছে, যাদের মধ্যে পাঁচজন বেসামরিক নাগরিক ছিল। ইউক্রেন বলেছে যে তারা একটি ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করেছে কিন্তু মস্কোর বাহিনী রাজধানীর বাইরে লিউটিজ গ্রামে একটি সামরিক কম্পাউন্ডে আঘাত করেছে, একটি ভবন ধ্বংস করেছে এবং অন্য দুটিকে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে।

কিয়েভের আঞ্চলিক গভর্নর ওলেক্সি কুলেবা এই হামলাকে রাষ্ট্রত্ব পালন দিবসের সাথে যুক্ত করেছেন যেটি প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকি গত বছর প্রতিষ্ঠা করেছিলেন এবং ইউক্রেন বৃহস্পতিবার প্রথমবারের মতো তা পালন করেছে ৷

কুলেবা ইউক্রেনের টেলিভিশনকে বলেছেন, "রাশিয়া, ক্ষেপণাস্ত্রের সাহায্যে, ব্যাপক প্রতিরোধের প্রতিশোধ নিচ্ছে, যা ইউক্রেনীয়রা তাদের রাষ্ট্রত্বের কারণে সুনির্দিষ্টভাবে সংগঠিত করতে সক্ষম হয়েছিল। ইউক্রেন ইতোমধ্যে রাশিয়ার পরিকল্পনা ভঙ্গ করেছে এবং আত্মরক্ষা চালিয়ে যাবে।"

চেরনিহিভের আঞ্চলিক গভর্নর ভ্যাচেস্লাভ চাউস জানিয়েছেন যে রাশিয়াও প্রতিবেশী বেলারুশ থেকে হোনচারিভস্কা গ্রামে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। চেরনিহিভ অঞ্চলকে কয়েক সপ্তাহের মধ্যে লক্ষ্যবস্তু করা হয়নি।

এদিকে, ইউক্রেন বলেছে যে তারা খেরসন অঞ্চলটি পুনরুদ্ধার করার জন্য আক্রমণ অভিযান শুরু করেছে । বুধবার ডিনিপার নদীর উপর একটি গুরুত্বপূর্ণ সেতু তারা ভেঙ্গে দিয়েছে।রাশিয়া যুদ্ধের প্রথম দিকে এই স্থানের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছিল।

XS
SM
MD
LG