অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ৯০ শ্রমিক করোনা সংক্রমিত, উত্তোলন বন্ধ


বাংলাদেশের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি

বাংলাদেশের দিনাজপুর জেলার, বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে কর্মরত ৯০ জন শ্রমিক করোনা সংক্রমিত বলে শনাক্ত হওয়ায়, শুক্রবার (২৯ জুলাই) থেকে সাময়িকভাবে কয়লা উত্তোলন বন্ধ রাখা হয়েছে।

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম সরকার শনিবার (৩০ জুলাই) জানান, “দুই দফা নমুনা পরীক্ষায় ৫০ জন চীনা ও ৪০ জন বাংলাদেশি শ্রমিকের ফল করোনা পজিটিভ হয়। করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায়, চীনা শ্রমিকদের সংস্পর্শে থাকা ৪৫০ বাংলাদেশি শ্রমিককে শুক্রবার খনি থেকে বের করে দেয়া হয়েছে। এছাড়া, ৩০২ জন চীনা ও ৬০ জন বাংলাদেশি শ্রমিক কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। এ জন্য কয়লা উত্তোলন সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছে।”

নতুন ফেইজের (১৩০৬) মেশিন এ্যাডজাস্টের কারণে কমপক্ষে ১০ দিন কয়লা উত্তোলন করা সম্ভব নয় বলে জানান প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম । তিনি বলেন, “এরপর থেকে কয়লা উত্তোলনের আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।”

“তবে, বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রে সরবরাহের জন্য কমপক্ষে ৪০ হাজার মেট্রিক টন কয়লা খনির ইয়ার্ড মজুত রয়েছে। এতে কয়লা ভিত্তিক ঐ কেন্দ্রে বিদ্যুৎ উৎপাদন সচল রাখা যাবে;” জানান বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক। বলেন, “বাংলাদেশি শ্রমিকদের মধ্যে, যাদের নমুনা পরীক্ষায় নেগেটিভ আসবে তারা কাজে যোগদান করতে পারবেন।”

XS
SM
MD
LG