অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইউরো ২০২২ ফুটবল শিরোপা জিতলো ইংল্যান্ডের নারী ফুটবল দল


লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ড এবং জার্মানির মধ্যকার মহিলা ইউরো ২০২২ ফুটবল ম্যাচের ফাইনাল দেখার জন্য, রবিবার, ইংল্যান্ডের সমর্থকরা ট্রাফালগার স্কোয়ারের ফ্যান জোনে জড়ো হয়। ৩১ জুলাই, ২০২২।

অর্ধশতকেরও বেশি সময় পর প্রথমবারের মতো বড় কোনো আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্ট জিতেছে ইংল্যান্ড। তবে পুরুষ নয়, জিতেছে নারী দল। যা কিনা কয়েক দশকের প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে অনেক ভক্তের জন্য এই জয়কে আরও মধুর করে তুলেছে।

লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ঐ ফাইনালে জার্মানির বিরুদ্ধে ২-১ গোলে ইংল্যান্ড জয়ী হলে জনতা আনন্দে ফেটে পড়ে। এটি ছিল ইংল্যান্ডের নারী দলের জন্য প্রথম ইউরোপীয় জয় এবং ১৯৬৬ সাল থেকে ইংল্যান্ড-এর পুরুষ বা মহিলা যে কোনো দলের জন্য প্রথম কোনও বড় আন্তর্জাতিক ট্রফি।

২৪ বছর বয়সী বেকা স্টুয়ার্ট বলেন, "আমি খুব খুশি।" "এটি প্রমাণ করে যে এত বছর পর নারী ফুটবল চিন্তা করার এবং চিৎকার করে বলার মতো একটা ঘটনা। আমরা এটি করেছি - পুরুষরা এটি করতে পারেনি। কিন্তু আমরা করতে পেরেছি!"

ওয়েম্বলি মাঠে দর্শকরা সমস্বরে নিল ডায়মন্ডের "সুইট ক্যারোলিন" গানটি গেয়ে ওঠে, এবং গানটি একটি ফুটবল সঙ্গীতে পরিণত হয়।

মেরি কেইন তার ৮ বছর বয়সী মেয়েকে সাথে নিয়ে খেলা দেখতে গিয়েছিলেন। তিনি বলেন, "মেয়েরা অবশেষে ফুটবল শিরোপা ঘরে নিয়ে এসেছে। এতে আমরা যারপরনাই আনন্দিত! এটা সত্যিই একটা ঐতিহাসিক মুহূর্ত। এটি নিঃসন্দেহে একটি যাদুকরি ম্যাচ এবং নারীদের খেলাধুলার জন্য এক যুগান্তকারী মুহূর্ত ছিল।"

ফলাফল যাই হোক না কেন, ঐ সিংহীরা একটি জাতিকে উজ্জীবিত করেছে এবং ব্রিটেনে মহিলাদের খেলাধুলার আগ্রহকে একটি সম্পূর্ণ নতুন স্তরে নিয়ে এসেছে। তাদের এই সাফল্য যুক্তরাজ্যের রাজনৈতিক অস্থিরতা এবং খাদ্য ও জ্বালানির ঊর্ধ্বমুখী মূল্যের মধ্যে জীবনযাত্রার ব্যয়-সংকট থেকে সবার দৃষ্টি কিছুক্ষণের জন্য অন্যদিকে সরিয়ে নিতে পেরেছে।

XS
SM
MD
LG