অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সাথে যুক্ত চ্যানেলগুলো বন্ধ করতে গুগল-এর প্রতি নাইজেরিয়ার আহবান


একটি ইউটিউব অ্যাপ আইপ্যাডে দেখানো হয়েছে। ফাইল ছবি।

নাইজেরিয়ার কর্তৃপক্ষ সার্চ ইঞ্জিন গুগলকে, দেশটির বিচ্ছিন্নতাবাদী ও সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সাথে যুক্ত ইউটিউব চ্যানেল এবং লাইভস্ট্রিম বন্ধ করতে বলেছে।

বৃহস্পতিবার আবুজায় গুগলের নির্বাহীদের সাথে এক বৈঠকে, নাইজেরিয়ার তথ্যমন্ত্রী লাই মোহাম্মদ এই আবেদন জানান।

তিনি বলেন, বিষয়টি ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ক্ষতিকর বিষয়বস্তু থেকে রক্ষা করার জন্য সরকারের প্রচেষ্টার অংশ। বিশেষ করে আগামী বছরের নির্বাচনের আগেই এটা করতে চান তার।

মোহাম্মদ বলেন, সরকার বায়াফ্রার আদিবাসীদের কর্মকাণ্ড নিয়ে বিশেষভাবে উদ্বিগ্ন। এটি একটি নিষিদ্ধ গোষ্ঠী, যারা বছরের পর বছরে ধরে দক্ষিণ-পূর্ব নাইজেরিয়াকে বিচ্ছিন্নতার দিকে ঠেলে দেয়ার চেষ্টা করছে।

বৃহস্পতিবারের বৈঠকের পর,গুগলের সরকারি বিষয় ও জননীতি বিষয়ক আঞ্চলিক পরিচালক চার্লস মুরিটো এক বিবৃতিতে বলেছেন “আমরা চাই না আমাদের প্ল্যাটফর্মটি কোন হীন উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হোক।”

তিনি আরও বলেন, কোম্পানির কাছে নাইজেরীয় সরকারের উদ্বেগ নিরসনের উপায় রয়েছে। যার মধ্যে, প্রশিক্ষিত ব্যবহারকারীদের জন্য সমস্যাযুক্ত বিষয়বস্তু চিহ্নিত করার একটি ব্যবস্থাও রয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের প্ল্যাটফর্মগুলো প্রায়শই জনসাধারণের অস্থিরতা উস্কে দিতে ব্যবহৃত হচ্ছে; এই উদ্বেগ থেকে কয়েক বছর ধরে নাইজেরিয়ার কর্তৃপক্ষ সেগুলো নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছে।

গত বছর জুনে, আঞ্চলিক বিচ্ছিন্নতাবাদীদের বিরুদ্ধে পরিচালিত অভিযান সম্পর্কে প্রেসিডেন্ট মুহাম্মাদু বুহারির একটি টুইট মুছে ফেলার পর, কর্তৃপক্ষ টুইটার নিষিদ্ধ করেছিল।

৭ মাস পরে, সরকার শর্ত সাপেক্ষে টুইটার ব্যবহারের সুযোগ দেয়। নাইজেরিয়ার জনগোষ্ঠীর একটি বিশল অংশ ফেসবুক, টুইটার, টিকটক এবং ইউটিউবের মতো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে।



XS
SM
MD
LG