অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

শান্তির লক্ষ্যে মিয়ানমারের অগ্রগতির অভাবের নিন্দা করেছে আসিয়ান


মিয়ানমারের নেপিডোতে দেশটির ৭৭তম সশস্ত্র বাহিনী দিবসে কুচকাওয়াজের সময় সামরিক পদযাত্রায় সেনা সদস্যরা। ২৭ মার্চ, ২০২২।

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার মন্ত্রীরা শুক্রবার অভ্যুত্থান-আক্রান্ত মিয়ানমারের সংকট সমাধান পরিকল্পনায় অগ্রগতির অভাবের নিন্দা করেছেন, এই বছরের শেষের দিকে একটি আঞ্চলিক শীর্ষ সম্মেলনের আগে জান্তাকে পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।

গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে একটি অভূত্থানের পর থেকে মিয়ানমার বিশৃঙ্খলার মধ্যে রয়েছে এবং একটি স্থানীয় পর্যবেক্ষণ গ্রুপ অনুসারে ভিন্নমতের বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীর নৃশংস দমন অভিযানে নিহতের সংখ্যা ২১০০ পেরিয়ে গেছে।

জেনারেলদের অসহযোগিতা এবং এড়িয়ে যাওয়ার প্রবণতায় অ্যাসোসিয়েশন অফ সাউথইস্ট এশিয়ান নেশনস (আসিয়ান ‘এর কিছু সদস্যের মধ্যে ক্ষোভ বাড়ছে, বিশেষ করে গত মাসে দুইজন বিশিষ্ট গণতন্ত্রপন্থী ব্যক্তিসহ চারজন বন্দীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়ার পর এই ক্ষোভ আরও বৃদ্ধি পেয়েছে।

নম পেনে পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের আলোচনার পর ১০-সদস্যের ব্লক একটি যৌথ বিবৃতি জারি করেছে। গোলযোগের নিস্পত্তির জন্য নিষ্ফল প্রচেষ্টাকে আবারও তাঁরা তুলে ধরছেন।

মন্ত্রীরা বলেন যে তারা "পাঁচ দফা ঐকমত্যের সময়োপযোগী এবং সম্পূর্ণ বাস্তবায়নে নেপিডাও কর্তৃপক্ষের সীমিত অগ্রগতি এবং প্রতিশ্রুতির অভাবের কারণে গভীরভাবে হতাশ"।

মিয়ানমারের জান্তাকে একটি প্রচ্ছন্ন সতর্কবার্তায়, আসিয়ান সনদের ২০ অনুচ্ছেদের উল্লেখ করে বিবৃতি দেয়া হয়েছে যে মিয়ানমারের "অ-সম্মতি" নিয়ে এই বছরের শেষের দিকে নেতাদের বৈঠক এখনও পদক্ষেপ নিতে পারে।

আসিয়ানের সিদ্ধান্তগুলি সাধারণত ঐকমত্যের ভিত্তিতে নেওয়া হয়, কিন্তু ২০ অনুচ্ছেদ শীর্ষ সম্মেলনকে এই নীতি অগ্রাহ্য করার অনুমতি দেয়৷

মিয়ানমারের শীর্ষ কূটনীতিক, উন্না মং লুইনকে নম পেনে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি এবং ফেব্রুয়ারিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের অবকাশকালীন বৈঠক থেকেও বাদ পড়েছিলেন। তখন জান্তা নেতা মিন অং হ্লাইংকে গত বছর নেতাদের শীর্ষ সম্মেলনে অবজ্ঞা করা হয়েছিল।

পররাষ্ট্র মন্ত্রীরা গত মাসে ক্ষমতাচ্যুত বেসামরিক নেতা অং সান সু চির ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি পার্টি থেকে আইন প্রণেতা ফিও জেয়া থাও, যিনি একজন র‌্যাপার ছিলেন ও পরবর্তীতে রাজনীতিতে অংশগ্রহণ করেছিলেন এবং প্রবীণ রাজনৈতিক কর্মী কিয়াও মিন ইউ, যিনি "জিমি" নামে বেশি পরিচিত তাদের মৃত্যুদণ্ডের নিন্দা করেছেন।

সপ্তাহের শুরুর দিকে, মালয়েশিয়া - যা কঠোর পদক্ষেপের আহ্বান জানিয়েছে - ইঙ্গিত দিয়েছে যে নেতাদের সম্মেলনের আগে সদস্যরা যদি নির্দিষ্ট অগ্রগতি না দেখতে পায়।মায়ানমারকে এই ব্লক থেকে সাময়িক ভাবে বের করে দেয়া হতে পারে।

XS
SM
MD
LG