অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কাবুলে ইসলামিক স্টেটের বোমা হামলায় ৮ আফগান শিয়া মুসলিম নিহত


আফগান শিয়া মুসলমানরা আশুরার তিন দিন আগে, কাবুলের একটি মসজিদেএকটি শোক অনুষ্ঠানে যোগদান করে৷ সে সময় শুক্রবার শহরের একটি শিয়া সমাবেশের কাছে একটি বোমা বিস্ফোরণে কমপক্ষে ৮ জন বেসামরিক লোক নিহত এবং ১৮ জন আহত হয়৷। ৫ আগস্ট, ২০২২।

আফগানিস্তানের কাবুলে একটি শিয়া মুসলিম ধর্মীয় সমাবেশের কাছে শুক্রবার একটি শক্তিশালী বোমা বিস্ফোরণে কমপক্ষে আটজন বেসামরিক লোক নিহত এবং ১৮ জন আহত হয়েছে।

স্বঘোষিত ইসলামিক স্টেট সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর আঞ্চলিক শাখা হামলার দায় স্বীকার করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, বিস্ফোরণটি ঘটে যখন আফগান রাজধানীর একটি শিয়া অধ্যুষিত পশ্চিমাঞ্চলীয় এলাকায় নারী ও শিশুসহ সংখ্যালঘু গোষ্ঠীর সদস্যরা বার্ষিক শোক পালনে ব্যস্ত ছিল।

তালিবান মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ টুইটারে হতাহতের সংখ্যা নিশ্চিত করে বলেছেন, বোমাটি পুশকার্টে স্থাপন করা হয়েছিল এবং নিহতরা সবাই "নিরপরাধ বেসামরিক লোক "।

মুজাহিদ বলেন, সরকার এই কাপুরুষোচিত কাজের তীব্র নিন্দা করে। হামলাটি ইসলামের এবং আফগানিস্তানের শত্রুদের কাজ। তিনি আর বিস্তারিত কিছু বলেননি।

ইসলামিক স্টেটের আফগান শাখা, ইসলামিক স্টেট খোরাসান প্রদেশ বা আইএসআইএস-কে নামে পরিচিত, মারাত্মক বোমা হামলার পরিকল্পনার জন্য কৃতিত্ব দাবি করেছে এবং বলেছে যে এতে ২০ জন হতাহত হয়েছে।

তালিবানের অভিযান

বুধবার, তালিবান নিরাপত্তা বাহিনী আফগানিস্তানের রাজধানীতে একটি "গুরুত্বপূর্ণ" আইএসআইএস-কে সেলে অভিযান চালিয়ে চার জঙ্গিকে হত্যা করেছে এবং পরবর্তী বন্দুকযুদ্ধে আরও একজনকে জীবিত বন্দী করেছে।

অভিযান-পরবর্তী বিবৃতিতে মুজাহিদ বলেছেন যে জঙ্গিরা " মহরমের অনুষ্ঠান চলাকালীন আমাদের শিয়া দেশবাসীদের উপর হামলা করার পরিকল্পনা করছিল।"

সুন্নি-ভিত্তিক আইএসআইএস-কে সাম্প্রতিক বছরগুলিতে আফগানিস্তানে শিয়াদের সমাবেশ এবং উপাসনালয়ে প্রায় সমস্ত হামলার দায় স্বীকার করেছে।

তালিবান কাবুল এবং দেশের অন্যত্র আইএসআইএস-কে-এর আস্তানাগুলির বিরুদ্ধে নিয়মিত অভিযান চালিয়েছে, দাবি করেছে যে তারা এই সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর শক্তি উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস করতে পেরেছে।

XS
SM
MD
LG