অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আফ্রিকার খাদ্য সংকট মেটাতে যুক্তরাষ্ট্রের আরও ১৫ কোটি ডলার অনুদানের ঘোষণা


আক্রার ঘানা বিশ্ববিদ্যালয়ে শান্তি এবং খাদ্য নিরাপত্তার বিষয়ে একটি মূল বক্তব্য প্রদান করেছেন, জাতিসংঘে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত লিন্ডা থমাস-গ্রিনফিল্ড৷ ৫ই অগাস্ট, ২০২২।

জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত লিন্ডা টমাস-গ্রিনফিল্ড শুক্রবার খাদ্য ও মানবিক সংকট মোকাবেলায়, আফ্রিকার জন্য ১৫ কোটি ডলারের একটি নতুন প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন।

আক্রার ঘানা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫০০ জনেরও বেশি অংশগ্রহণকারীর এক সমাবেশে বক্তৃতাকালে, টমাস-গ্রিনফিল্ড বলেন, বর্তমান বিশ্ব নজিরবিহীন খাদ্য সংকটের মুখোমুখি হচ্ছে, যাকে তিনি "অভূতপূর্ব বিশ্ব প্রতিক্রিয়া" বলে অভিহিত করেছেন।

তিনি বলেন, "আমাদের দিক থেকে, যুক্তরাষ্ট্র এই কাজের জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। … তবে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য এবং খাদ্য নিরাপত্তা শরণার্থী এবং অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুত লোকের জন্য যে আরও জটিল আকার ধারণ করে, এমন সব সংকট মোকাবেলার জন্য আরও তহবিল প্রয়োজন। আমি আফ্রিকার জন্য কংগ্রেসের অনুমোদনের অপেক্ষায় থাকা প্রায় ১৫ কোটি ডলার নতুন, অতিরিক্ত মানবিক তহবিল এবং উন্নয়ন সহায়তা ঘোষণা করতে পেরে গর্বিত।"

তিনি বলেন, নতুন এই প্যাকেজ, কংগ্রেস দ্বারা অনুমোদিত হলে, এই বছরের শুরু থেকে আফ্রিকাতে যুক্তরাষ্ট্রের মানবিক সহায়তা বাড়িয়ে ৬৬০ কোটি ডলারে উন্নীত করবে।

রাষ্ট্রদূত বলেন, বিশ্বব্যাপী খাদ্যের দাম এক বছর আগের তুলনায় ২৩ শতাংশ বেড়েছে। আংশিকভাবে ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের ফলে - দুটি দেশ মিলিতভাবে আফ্রিকার ৪০% এরও বেশি গম সরবরাহ করে।

এতে ঘানার জন্য ২৫ লাখ ডলারের নতুন উন্নয়ন সহায়তা এবং উগান্ডার জন্য ২ কোটি ডলার অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। টমাস-গ্রিনফিল্ড পশ্চিম আফ্রিকার দেশটি পরিদর্শন করার আগে এ দুটি দেশে এক সংক্ষিপ্ত যাত্রা বিরতি করেন।

তিনি বলেন, নতুন অর্থায়নে আফ্রিকার জন্য অতিরিক্ত মানবিক সহায়তায় ১২.৭ কোটি ডলারেরও বেশি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে মূলত "শরণার্থী, আশ্রয়প্রার্থী, অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুত ব্যক্তি, রাষ্ট্রহীন ব্যক্তি এবং আফ্রিকা জুড়ে নির্যাতিত ব্যক্তিদের জীবন রক্ষাকারী সহায়তা" প্রদানের জন্য।

ইউক্রেনের যুদ্ধের নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, খাদ্যকে যুদ্ধের অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা ঠেকাতে, জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে আরও সক্রিয় হতে হবে।

তিনি বলেন, "বিশ্বকে দেখতে হবে যে, কীভাবে খাদ্য নিরাপত্তাহীনতা সংঘাতের ঝুঁকি বাড়ায়। এছাড়া নিরাপত্তা পরিষদকে খাদ্যকে যুদ্ধের অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা বন্ধ করতে, আরও ভালো কিছু কাজ করতে হবে।"

টমাস-গ্রিনফিল্ড বলেন, আফ্রিকার নিজেদেরই একটা খাদ্য ভাণ্ডার হওয়ার অপার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে ভবিষ্যতের খাদ্য ব্যবস্থা এবং প্রয়োজনীয় কাঠামো তৈরি করতে, নাগরিক সমাজ এবং বেসরকারী খাতের সাথে অংশীদারিত্ব গড়ে তুলতে, বর্তমান পরিস্থিতির পুরোপুরি সদ্ব্যবহার করতে হবে।

XS
SM
MD
LG