অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কোভিড আক্রান্ত হবার পর প্রথমবারের মত হোয়াইট হাউজ থেকে বের হলেন বাইডেন


ওয়াশিংটনের হোয়াইট হাউজের সাউথ লন এ মেরিন ওয়ান-এ উঠতে যাওয়ার সময়ে হাত নেড়ে অভ্যর্থনা জানাচ্ছেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন, ৭ আগস্ট ২০২২।

গত মাসে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে, রবিবার এই প্রথমবারের মত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন হোয়াইট হাউজ ছেড়ে বের হন। এর ফলে কোভিড-১৯ এর কারণে তার সর্বসাম্প্রতিক আইসোলেশনের সমাপ্তি ঘটে। আইসোলেশন শেষে প্রেসিডেন্ট ডেলাওয়্যার-এ ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেনের সাথে দেখা করতে যান।

প্রেসিডেন্টের শনি ও রবিবার করা পরীক্ষায় নেগেটিভ ফলাফল আসে বলে তার চিকিৎসক জানান। এর ফলে তিনি আইসোলেশন থেকে বেরিয়ে আসার সুযোগ পান, যা কিনা প্রত্যাশার চেয়ে দীর্ঘতর সময় ধরে তাকে পালন করতে হয়েছে কারণ তার সংক্রমণটি ফিরে এসেছিল।

হোয়াইট হাউজের বাইরে দাঁড়িয়ে, প্রেসিডেন্টের জন্য নির্ধারিত মেরিন ওয়ান হেলিকপ্টারে উঠার আগে বাইডেন বলেন, “আমার বেশ ভাল লাগছে।”

ধারণা করা হচ্ছে বাইডেন পরিবার দিনটি রেহোবোথ সৈকতে কাটাবেন। সেটি অবকাশযাপনের একটি জনপ্রিয় স্থান।

প্রাথমিকভাবে ২১ জুলাই বাইডেনের সংক্রমণ ধরা পড়ে এবং তিনি প্যাক্সলোভিড নামক অ্যান্টি-ভাইরাল ওষুধটি গ্রহণ করা আরম্ভ করেন। এই ওষুধটি ভাইরাসটির কারণে গুরুতরভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ার সম্ভাবনা কমানোর উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হয়। তার চিকিৎসকদের মতে, সংক্রমণের পুরো সময় জুড়েই বাইডেনের গুরুত্বপূর্ণ শারিরীক লক্ষণগুলো স্বাভাবিক ছিল। তবে, তার লক্ষণগুলোর মধ্যে নাক দিয়ে পানি পড়া, কাশি, গলায় খুসখুসে ভাব ও শরীরে ব্যথা ছিল।

কয়েকদিন আইসোলেশনে থাকার পর, বাইডেনের ২৬ ও ২৭ জুলাই করা পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ আসে। সে সময়ে তিনি রোজ গার্ডেনে এক ভাষণ দেন, যাতে তিনি আমেরিকানদের উদ্দেশ্যে বলেন যে, তারা “ভয়হীনভাবে থাকতে পারেন” যদি তারা বুস্টার ডোজ নেন, অসুস্থ হলে ভাইরাসের জন্য নিজেদের পরীক্ষা করান এবং চিকিৎসা গ্রহণ করেন।

তবে এক বিরল ঘটনায়, ৩০ জুলাই বাইডেনের আবারও কোভিড-১৯ সংক্রমণ ধরা পড়ে। এর ফলে তিনি আবারও আইসোলেশনে ফিরে যেতে বাধ্য হন। তিনি মাঝেমধ্যে হোয়াইট হাউজের বারান্দা থেকে ভাষণ দেন। উদাহরণস্বরূপ, আল-কায়েদার এক নেতা নিহত হওয়া বা কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের শক্তিশালী অবস্থানের প্রতিবেদন প্রকাশের সময়ে যেমনটি তিনি করেন।

লাগাতার সংক্রমণ ধরা পড়ার পর, শনিবার প্রথমবার তার পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ আসে। হোয়াইট হাউজের বাসস্থানে প্রেসিডেন্ট আইসোলেশনে থাকাকালীন ফার্স্ট লেডি ডেলাওয়্যারে অবস্থান করছিলেন।

বাইডেন দম্পতির সোমবার কেন্টাকি সফরের কথা রয়েছে। সেখানে তারা বন্যার ক্ষয়ক্ষতি প্রত্যক্ষ করবেন এবং ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর সাথে দেখা করবেন।

XS
SM
MD
LG