অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

চট্টগ্রামে স্বর্ণ চোরাচালান মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড


চট্টগ্রামে স্বর্ণ চোরাচালান মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড।
চট্টগ্রামে স্বর্ণ চোরাচালান মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড।

বাংলাদেশের চট্টগ্রামে প্রাইভেটকারের তেলের ট্যাঙ্কের ভেতর থেকে ১২০টি স্বর্ণের বার উদ্ধারের ঘটনায় করা মামলায়, স্বর্ণ চোরাকারবারী চক্রের তিন সদস্যকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রবিবার (২১ আগস্ট) চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ বেগম জেবুননেছা এ রায় ঘোষণা করেন। একই রায়ে আদালত তাদের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, আনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন; জাকির উদ্দিন মুন্না, মো. জাহির ও মো. ফারুক। এদের মধ্যে ফারুক ছাড়া বাকি দুইজন পলাতক।

মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট মো. ফখরুদ্দিন চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।তিনি বলেন, “এ মামলায় ১৫ জন সাক্ষীর মধ্যে রাষ্ট্রপক্ষে ১১ জন সাক্ষ্য দিয়েছেন। রায়ে তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। দণ্ডপ্রাপ্ত জাকির উদ্দিন মুন্না ও মো. জাহির জামিনে গিয়ে পলাতক রয়েছেন। আর ফারুক রায় ঘোষণার সময় আদালতের হাজতে ছিলেন।”

মামলার এজাহার ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ২৩ জুন নগরীর বায়েজিদ বোস্তামী থানা এলাকার একটি প্রাইভেট কারের তেলের ট্যাঙ্কের ভেতরে রাখা ১২০টি স্বর্ণের বারসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। এই ঘটনায় বায়েজিদ বোস্তামী থানায় পুলিশ বাদি হয়ে মামলা দায়ের করে। ২০১৫ সালের ১৩ নভেম্বর অভিযোগপত্র আদালতে জমা দেয় পুলিশ। ২০১৬ সালের ১৮ এপ্রিল অভিযোগ গঠন করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে বিচার শুরু হয়।

মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে যে, অভিযুক্তরা আন্তর্জাতিক চোরাচালান দলের সদস্য। স্বর্ণের বারগুলো প্রাইভেটকারযোগে ঢাকায় নেয়ার পথে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে।

XS
SM
MD
LG