অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রোহিঙ্গাদের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের আরও সহায়তা চায় ইউএনএইচসিআর


উখিয়ার কুতুপালং শরণার্থী শিবিরের একটি বাজার এলাকায় শাকসবজি এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসের কেনাকাটা করছে রোহিঙ্গা শরণার্থীরা। (ছবি মুনির উজ জামান / এএফপি)

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া কিশোর ও প্রাপ্তবয়স্ক রোহিঙ্গা শরণার্থীরা যাতে বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ এবং আরও বিভিন্ন ধরনের দক্ষতা উন্নয়নের মাধ্যমে জীবনামানের উন্নয়ন ঘটাতে পারে, তা নিশ্চিত করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে আরও বেশি বিনিয়োগ আহ্বান করেছে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর।

মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) জাতিসংঘের এই সংস্থাটি বলেছে, “এর মাধ্যমে শরণার্থীরা বাংলাদেশে মর্যাদার সঙ্গে বসবাস করতে পারবে এবং স্বেচ্ছায় ও নিরাপদে মিয়ানমারে ফিরে যাওয়ার পর তাদের সম্প্রদায়কে সমর্থন করতে এবং সর্বোপরি তাদের জীবন পুনর্গঠনের জন্য প্রস্তুত করতে সহায়তা করবে।”

ইউএনএইচসিআর বলেছে, “আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তা, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জীবন রক্ষাকারী সুরক্ষা ও সহায়তা প্রদানে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তবে গুরুত্বপূর্ণ এই তহবিল প্রয়োজনের তুলনায় খুবই অপ্রতুল।”

২০২০ এর পরিকল্পনার অংশ হিসেবে, ১৪ লাখের বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থী এবং পাঁচ লাখের বেশি বাংলাদেশি জনগণের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে ৮৮ কোটি ১০ লাখ ডলারের বেশি সহায়তা চাওয়া হয়। এখন পর্যন্ত এর ৪৯ শতাংশ, অর্থাৎ ৪২ কোটি ৬২ লাখ ডলার আদায় করা সম্ভব হয়েছে।

একইসঙ্গে ইউএনএইচসিআর বলেছে, “রোহিঙ্গারা যাতে বাস্তুচ্যুত হয়ে না থাকে এবং স্বেচ্ছায়, নিরাপদ, মর্যাদাপূর্ণ ও টেকসই প্রত্যাবর্তনের পরিস্থিতি তৈরি করতে, রাজনৈতিক সংলাপ ও কূটনৈতিক সম্পৃক্ততা বৃদ্ধির জন্য দ্বিগুণ প্রচেষ্টা নিশ্চিত করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আরও বেশি কিছু করতে হবে।”

XS
SM
MD
LG