অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইউক্রেন যুদ্ধ বন্ধ করতে পুতিনের প্রতি আহ্বান জানালেন জাতিসংঘের মানবাধিকার প্রধান


রাজধানী কিয়েভে ইউক্রেনের মাতৃভুমি স্মৃতিস্তম্ভের সামনে জাতীয় পতাকা বহন করে একটি ড্রোন উড়ে যাচ্ছে, ২৪ আগস্ট ২০২২।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান, মিশেল বাচেলেট বৃহস্পতিবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রতি “ইউক্রেনের বিরুদ্ধে সশস্ত্র আক্রমণ বন্ধ করার” আহ্বান জানিয়েছেন।

এই সংঘাত শুরু হওয়ার ছয়মাস পূর্ণ হওয়ার একদিন পর দেয়া বক্তব্যে বাচেলেট ঝাপোরিঝিয়া পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের পরিস্থিতি তুলে ধরেন। তিনি বলেন যে, ঐ এলাকায় লড়াই বেসামরিক মানুষ ও পরিবেশকে “অকল্পনীয় ঝুঁকির” মধ্যে ফেলছে।

বৃহস্পতিবার বাচেলেট আরও বলেন যে, রাশিয়া ও ইউক্রেন, উভয়ের বাহিনীকেই আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করতে হবে। আর, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অবশ্যই এই আইনের লঙ্ঘনের জন্য জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে।

এদিকে, ইউক্রেনের কর্মকর্তারা বৃহস্পতিবার জানান যে, ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে এক রেলস্টেশনে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৫ জন হয়েছে। চ্যাপলিন শহরের ঐ ঘটনাস্থলে ধ্বংসস্তুপের নিচ থেকে আরও বেশ কয়েকজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন ‍এক টুইট বার্তায় বলেন, “বেসামরিক মানুষে পরিপূর্ণ ইউক্রেনের এক রেলস্টেশনে রুশ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা তাদের নির্মমতার প্রতিফলন । আমরা সারা বিশ্বে থাকা আমাদের সহযোগীদের সাথে মিলে ইউক্রেনের পাশে থাকবো এবং রুশ কর্মকর্তাদের জবাবদিহিতার জন্য চাপ অব্যাহত রাখব।”

এর আগে বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, রুশ যোদ্ধাদের প্রতিহত করতে ইউক্রেনের জনগণের “অসাধারণ সাহসিকতা ও স্বাধীনতার প্রতি নিষ্ঠার” প্রশংসা করেন। এ সময় তিনি প্রায় ৩০০ কোটি ডলারের এক নতুন সামরিক সহায়তার ঘোষণা দেন।

এই নতুন সহায়তার আগে, গত দেড় বছরে যুক্তরাষ্ট্র ইতোমধ্যেই ইউক্রেনে এক হাজার ৬০ কোটি ডলারের সামরিক সহায়তা পাঠিয়েছে।

XS
SM
MD
LG