অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইউক্রেন সম্পর্কে পোপের অবস্থান পরিষ্কার জানিয়ে দিল ভ্যাটিকান


ভ্যাটিকান মিডিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এই ছবিতে, পোপ ফ্রান্সিস (ডানে) ভ্যাটিকানের হলি সি-তে ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত আন্দ্রি ইউরাশ (বামে) এর সাথে কথা বলছেন৷ ৬ অগাস্ট, ২০২২।

সম্প্রতি কিয়েভে রাশিয়ার একজন উগ্র-জাতীয়তাবাদী মতাদর্শীর কন্যার মৃত্যুর বিষয়ে পোপের মন্তব্যের পর, মঙ্গলবার ইউক্রেন বিষয়ে পোপের অবস্থান স্পষ্ট করেছে ভ্যাটিকান। এ সম্পর্কে কিয়েভে একটা বিরূপ ভাব লক্ষ্য করা গিয়েছে।

ভ্যাটিকান এক বিবৃতিতে বলেছে, "এই নাটকীয় ইস্যুতে পবিত্র পিতার বাণী মানবজীবন এবং এর সাথে সম্পর্কিত মূল্যবোধের পক্ষে উত্থাপিত একটি কণ্ঠস্বর হিসাবে পড়া উচিত, রাজনৈতিক অবস্থান হিসাবে নয়।"

ভ্যাটিকান বেশ জোর দিয়েই বলেছে, ইউক্রেনের যুদ্ধ "রুশ ফেডারেশন দ্বারা শুরু হয়েছিল" এবং পোপ ফ্রান্সিস "এই যুদ্ধকে নৈতিকভাবে অন্যায্য, অগ্রহণযোগ্য, বর্বর, সংবেদনশীল, ঘৃণ্য এবং কলুষতাপূর্ণ বলে নিন্দা জানাতে, তাঁর অবস্থান থেকে স্পষ্ট এবং দ্ব্যর্থহীন" ছিলেন।

২৪ আগস্ট ইউক্রেনের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে তাঁর ভাষণে পোপ সংঘাত সম্পর্কে বলেছিলেন: "অনেক নিরপরাধ মানুষকে... এই পাগলামির জন্য চরম মূল্য দিতে হয়েছে।"

উদাহরণ হিসাবে, তিনি গাড়িবোমা বিস্ফোরণে নিহত হওয়া প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের উগ্র-জাতীয়তাবাদী এক ঘনিষ্ঠ বন্ধুর মেয়ে, দারিয়া দুগিনা’র মৃত্যুর বিষয়টি উল্লেখ করেছেন।

পোপ ফ্রান্সিস, বারবার সংঘাতের নিন্দা করেছেন, তবে বেশ কয়েকবার এই যুদ্ধকে সাদা-কালো কালিতে না আঁকার জন্য এবং মস্কোর সাথে আলোচনার দরজা খোলা রাখার কথা বলার জন্য বেশ কিছু মহলে ব্যাপক সমালোচিত হয়েছেন।

গত জুনে জেসুইট জার্নাল সিভিল্টা ক্যাটোলিকা-তে প্রকাশিত এক সাক্ষাত্কারে পোপ জোর দিয়ে বলেন, "যে কেউ এই মুহুর্তে আমাকে বলতে পারেন: আপনি পুতিনপন্থী! কিন্তু না, আমি মোটেও তা নই।"

গত জুলাই মাসে, রোমান ক্যাথলিক চার্চের প্রধান, ইউক্রেন ভ্রমণের বিষয়ে তাঁর ইচ্ছার পুনরাবৃত্তি করেছিলেন।

সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে কাজাখস্তানে ধর্মীয় নেতাদের এক সম্মেলনে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে ৮৫ বছর বয়সী এই ক্যাথলিক ধর্মগুরুর।

XS
SM
MD
LG