অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

শ্রীলঙ্কাকে ২৯০ কোটি ডলার প্রদানে সম্মত আইএমএফ


শ্রীলঙ্কার সরকারের বিরুদ্ধে ও ছাত্রনেতাদের মুক্তির দাবিতে কলম্বোতে এক বিক্ষোভের সময়, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী ও বিক্ষোভকারীরা পুলিশের সাথে বাকবিতন্ডা জড়িয়ে পড়ে। ৩০ আগস্ট ২০২২।
শ্রীলঙ্কার সরকারের বিরুদ্ধে ও ছাত্রনেতাদের মুক্তির দাবিতে কলম্বোতে এক বিক্ষোভের সময়, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী ও বিক্ষোভকারীরা পুলিশের সাথে বাকবিতন্ডা জড়িয়ে পড়ে। ৩০ আগস্ট ২০২২।

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, সংস্থাটি, শ্রীলঙ্কাকে অর্থনৈতিক সংকট উত্তরণে সহায়তা করতে, চার বছরে ২৯০ কোটি ডলার দেওয়ার লক্ষ্যে দেশটির সাথে কর্মকর্তা পর্যায়ের বৈঠকে একটি সমঝোতায় পৌঁছেছে।

শ্রীলঙ্কা সফররত আইএমএফ দল এক বিবৃতিতে বলে যে, প্রাথমিক এই সমঝোতাটি সংস্থাটির ব্যবস্থাপনা কর্তপক্ষ ও নির্বাহী বোর্ডের অনুমোদন সাপেক্ষ বিষয়। এটি “কর্তৃপক্ষের একইরকম পূর্ব-কার্যক্রমের বাস্তবায়ন, শ্রীলঙ্কার আনুষ্ঠানিক ঋণদাতাদের কাছ থেকে অর্থায়নের আশ্বাস এবং বেসরকারি ঋণদাতাদের সাথে একটি সহযোগিতা চুক্তিতে পৌঁছানোর আন্তরিক চেষ্টার উপর নির্ভর করবে”।

শ্রীলঙ্কা এখন স্মরণকালের সবচেয়ে খারাপ অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যে রয়েছে। বৈদেশিক মুদ্রার সংকটের কারণে দেশটিতে জ্বালানি, ওষুধ ও খাদ্যের মত নিত্যপণ্যের তীব্র অভাব দেখা দিয়েছে।

এই বছরই এমন ৭০০ কোটি ডলারের সমপরিমাণ বৈদেশিক ঋণ পরিশোধ করার কথা ছিল শ্রীলঙ্কার। সংকটের কারণে দেশটি তা স্থগিত করেছে। শ্রীলঙ্কার মোট বৈদেশিক ঋণের পরিমাণ পাঁচ হাজার একশ’ কোটি ডলারেরও বেশি; যার মধ্যে দুই হাজার আটশ’ কোটি ডলার ২০২৮ সালের মধ্যে পরিশোধ করতে হবে।

আইএমএফ জানায় যে, ধারণা করা হচ্ছে শ্রীলঙ্কার অর্থনীতি ৮ দশমিক ৭ শতাংশ সংকুচিত হবে। আর, মুদ্রস্ফীতি ইতোমধ্যেই ৬০ শতাংশ ছাড়িয়েছে।

সংস্থাটি বলে, “এই প্রেক্ষাপটে, তহবিলের (আইএমএফ) মাধ্যমে কর্তৃপক্ষ যে কর্মসূচি বাস্তবায়ন করবে, তার উদ্দেশ্য হবে অর্থনীতিকে স্থিতিশীল করা, শ্রীলঙ্কার মানুষের জীবিকা রক্ষা করা, অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের জন্য ক্ষেত্র প্রস্তুত করা এবং টেকসই ও অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন সাধন করা”।

XS
SM
MD
LG