অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

শরণার্থী সংখ্যা অনুমোদনের লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারছে না বাইডেন প্রশাসন


ইউমার কাছ, আরিজের একটি সীমানা প্রাচীরের শেষ প্রান্তে অপেক্ষমান অভিবাসন প্রত্যাসীরা। ২৩ আগস্ট, ২০২২।

যুক্তরাষ্ট্রের শরণার্থী প্রোগ্রাম ট্রাম্প প্রশাসনের অধীনে সবচেয়ে কম সংখ্যক শরণার্থীকে গ্রহণ করা হয়েছিল। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শরণার্থী গ্রহণের বার্ষিক সীমা ১ লাখ ২৫ হাজার নির্ধারণ করলেও, জুলাই পর্যন্ত এ কর্মসূচির আওতায় মাত্র ১৭ হাজার ৬৯০ জন শরণার্থীকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

শরণার্থীদের পক্ষে কাজ করেন এমন ব্যক্তিরা বলছেন, বাইডেন প্রশাসন ২০২২ অর্থবছরের উচ্চাভিলাষী লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যর্থ হতে চলেছে। তবে শরণার্থী কর্মসূচির পুনর্নির্মাণ চলছে এখনও।

লুথারান ইমিগ্রেশন এন্ড রিফিউজি সার্ভিসের প্রেসিডেন্ট ও সিইও ক্রিশ ও’মারা ভিগনারাজা বলেছেন, “ কিছু অগ্রগতি সত্ত্বেও, বিশ্বব্যাপী নজিরবিহীন বাস্তুচ্যুতির প্রেক্ষিতে অনুমোদনের বিষয়টি দুঃখজনকভাবে ধীর গতিতে এগুচ্ছে।”

তবে তিনি এ-ও বলেছেন যে, শরণার্থী অনুমোদনের আনুষ্ঠানিক সংখ্যা দিয়ে পুরো চিত্রটা বোঝা যায় না।

একটি ইমেইলে তিনি ভয়েস অফ আমেরিকাকে জানান, “গত বছর ৭০ হাজারেরও বেশি আফগান এবং আনুমানিক ৬০ হাজার ইউক্রেনীয় মানবিক বিবেচনায় যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করেছে। এই জনসংখ্যাকে শরণার্থী লক্ষ্যের মধ্যে গণনা করা হয় না, তবে পুনর্বাসন সংক্রান্ত অলাভজনক সংস্থাগুলো তাদের সহায়তা করার জন্য এগিয়ে গেছে।”

ব্রুকিংস ইন্সটিটিউশনের গ্লোবাল ইকোনমি এন্ড ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের একজন উর্ধ্বতন অনাবাসিক ফেলো ড্যানি বাহার ভয়েস অফ আমেরিকাকে বলেছেন, অভিবাসন বা শরণার্থী বিষয়ক প্রস্তাবগুলো নিয়ে ডেমোক্র্যাটরা এখনই লড়বে বলে মনে হচ্ছে না।

এদিকে, গ্যারান্টিড রিফিউজি এডমিশন সিলিং এন্হ্যান্সমেন্ট অ্যাক্ট বা গ্রেস অ্যাক্ট, যা কংগ্রেসে দুবার উত্থাপন করা হলেও পাশ হয়নি।এই বিল শরণার্থী সংখ্যা ১ লাখ ২৫ হাজারে নির্ধারণ করবে। এই প্রস্তাব পাস হলে, হোয়াইট হাউজে ডেমোক্র্যাট বা রিপাবলিকান যারাই থাকুক না কেন, শরণার্থী পুনর্বাসন সংস্থাগুলো ফেডারেল সরকারের কাছ থকে দীর্ঘস্থায়ী বাধ্যবাধকতার নিশ্চয়তা পাবে।

XS
SM
MD
LG