অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্রকে আফগান তহবিল সুইজারল্যান্ডে নেয়া পূনর্বিবেচনা করতে তালিবানের আহ্বান


এক তালিবান যোদ্ধা কাবুলের একটি ব্যাংকের বাইরে পাহারা দিচ্ছেন (১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২২)

যুক্তরাষ্ট্র বুধবার জানিয়েছে তারা আফগান রিজার্ভ থেকে কয়েক কোটি ডলার নিয়ে সুইজারল্যান্ডে একটি তহবিল গঠন করতে যাচ্ছে। আফগানিস্তানের বর্তমান কর্তৃপক্ষ যুক্তরাষ্ট্রকে তাদের দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বাইরে তহবিল বণ্টনের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার অনুরোধ জানিয়েছে।

এই অবমুক্ত তহবিল আফগানিস্তানের অচল হয়ে পড়া অর্থনীতিকে স্থিতিশীল করতে এবং দেশটিতে চলমান মানবিক সংকট নিরসনে ব্যবহার হবে, তবে এই প্রক্রিয়ায় তালিবানের কোন ভূমিকা থাকবে না।

মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি ও পররাষ্ট্র অধিদপ্তর এক যৌথ বিবৃতিতে জানায়, ‘আফগান তহবিল ৩৫০ কোটি ডলারের সুরক্ষা, সংরক্ষণ এবং সুনির্দিষ্ট বণ্টন করবে, যাতে অর্থনীতি আরও স্থিতিশীল হয়। তালিবান আফগান তহবিলের অংশ নয় এবং এই তহবিল যাতে অবৈধ কাজে ব্যবহার না হয়, সেটা নিশ্চিত করার জন্য শক্তিশালী সুরক্ষা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে’

তালিবান ক্ষমতা দখলের পরপরই যুক্তরাষ্ট্র নিউ ইয়র্কে আফগানিস্তানের ৭০০ কোটি ডলারের রিজার্ভ আটক করে। অন্যান্য দেশে আরও ২০০ কোটি ডলারের আফগান তহবিল আটকে আছে।

তালিবান দীর্ঘদিন ধরে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে তহবিল মুক্ত করে দেওয়ার দাবি জানিয়ে এসেছে। তাদের যুক্তি, এই অর্থ আফগানিস্তানের।

যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা জানান, তালিবান আফগানিস্তানের কেন্দ্রীয় ব্যাংকে তহবিল মুক্ত করার শর্ত পূরণ করেনি। শর্তগুলো ছিল, কেন্দ্রীয় ব্যাংক রাজনৈতিক হস্তক্ষেপের বহির্ভূত থাকবে, অর্থ পাচার ও সন্ত্রাস বিরোধী অর্থায়ন নিশ্চিত করবে এবং স্বাধীন নিরীক্ষকদের নজরদারি মেনে নেবে।

বিশেষজ্ঞরা জানান, তালিবানের অংশগ্রহণ ছাড়া আফগান অর্থনীতিকে স্থিতিশীল করাও লাখ লাখ আফগানদের সহায়তা দেওয়া অসম্ভব না হলেও বেশ কঠিন কাজ হবে।

আফগানিস্তান বিশ্বের দরিদ্রতম দেশগুলোর অন্যতম এবং গত এক বছরে দেশটি আরও গভীর দারিদ্র্য ও মানবতার সংকটে নিমজ্জিত হয়েছে।

বিশ্বের কোন দেশ এখনও তালিবানকে বৈধ সরকার হিসেবে স্বীকৃতি দেয়নি এবং তাদের এক বছরের শাসনামলের তীব্র সমালোচনা করা হয়েছে। সংশ্লিষ্টরা একে শোষণ ও নিপীড়নমূলক বলে অভিহিত করেছেন, বিশেষত আফগান নারীদের প্রতি।

XS
SM
MD
LG