অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বন্যাকবলিত পাকিস্তানে অ্যাঞ্জেলিনা জোলির আকস্মিক সফর


অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

হলিউড অভিনেত্রী এবং জাতিসংঘের মানবিককর্মী অ্যাঞ্জেলিনা জোলি মঙ্গলবার পাকিস্তানের দক্ষিণাঞ্চলে বন্যাকবলিত সবচেয়ে ভয়াবহ এলাকাগুলির একটিতে আকস্মিক পরিদর্শনে যান বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। তারা বলেন, কয়েক মাস ধরে চলতে থাকা বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১,৫৫৯জনে।

টিভি ফুটেজে জোলিকে দক্ষিণাঞ্চলের সিন্ধু প্রদেশের রাজধানী করাচির একটি বিমানবন্দরে পৌঁছাতে দেখা যায়। জুন মাসের মাঝামাঝি থেকে সেখানে বন্যায় ৬৯২ জন প্রাণ হারিয়েছে। বন্যায় হাজার হাজার ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং পাঁচ লক্ষ মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়ে।

স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর খবরে বলা হয়েছে যে তিনি পরে বন্যা কবলিত কয়েকটি এলাকা পরিদর্শন করেন। একটি উল্লেখযোগ্য আন্তর্জাতিক সহায়তা গ্রুপ আইআরসি-র মতে, জোলি ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত জনগোষ্ঠীকে সহায়তা দেওয়ার জন্য পাকিস্তান সফর করছেন।

জোলি দাদু সফর করেন যা সবচেয়ে বেশিক্ষতিগ্রস্ত জেলাগুলির একটি। সেখানে পানিবাহিত রোগের কারণে জুলাই থেকে প্রায় ৩০০ জন মারা গেছে। জোলির দাদু সফর সম্পর্কে সরকারের পক্ষ থেকে কোনও মন্তব্য করা হয়নি। বর্তমানে, চিকিৎসকরা বন্যায় বেঁচে যাওয়া মানুষের পানিবাহিত রোগের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধের চেষ্টা করছেন।

এই সফর এমন এক সময় হলো যখন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফজাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৭তম অধিবেশনে যোগ দিতে এখন নিউইয়র্কে রয়েছেন। শরিফ তার ভাষণে দরিদ্র দেশে জলবায়ু পরিবর্তনজনিত বন্যার কারণে সৃষ্ট ক্ষতির কথা তুলে ধরবেন।

পাকিস্তান বলছে, বন্যার কারণে দেশটির অর্থনৈতিক ক্ষতি হয়েছে তিন হাজার কোটি ডলার।

XS
SM
MD
LG