অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

হংকং-এ কভিড কোয়ারেন্টিন নীতি পরিবর্তন, সুশৃঙ্খলভাবে সবকিছু খুলে দেয়ার ইচ্ছা


ফাইল - করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারীর মধ্যে হংকং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে হোটেলে কোয়ারেন্টিনে থাকার জন্য যাত্রীরা সারিবদ্ধভাবে শাটল বাসের জন্য দাঁড়িয়ে। ১ আগস্ট ২০২২

হংকং মঙ্গলবার বলেছে যে তারা সমস্ত বহিরাগতদের জন্য তাদের বিতর্কিত কোভিড-১৯ হোটেল কোয়ারেন্টিন নীতি সম্পর্কে শীঘ্রই একটি ঘোষণা দিতে যাচ্ছে কারণ তারা শহরটিকে বাকি বিশ্বের সাথে সংযুক্ত রাখতে চাইছে এবং "সুশৃঙ্খলভাবে খুলে দেয়ার" অনুমতি দিতে চায়।

শহরটির নেতা জন লি বলেন, হংকংকে তার প্রতিযোগিতা বজায় রাখতে যে হবে সে বিষয়ে তিনি সচেতন ছিলেন। তিনি আরও বলেন যে কর্তৃপক্ষ শহরে নানা অনুষ্ঠান এবং কর্মতত্পরতা আবার শুরু করতে অত্যন্ত আগ্রহী।

তিনি সংবাদদাতাদের বলেন “আমরা জানি যে আমাদের ঠিক কোন পথে এগুনো উচিত এবং আমদের সেই দিকে এগিয়ে যাওয়ার জন্য সামঞ্জস্যপূর্ণ থাকতে হবে। আমরা সুশৃঙ্খলভাবে সব কিছু খুলে দিতে চাই--- কারণ আমরা এই প্রক্রিয়ায় বিশৃঙ্খলা বা বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতে চাই না।”

জিরো-কোভিড নীতি অনুসরণকারী চীনের কাছ থেকে হংকং কিছু নিয়ম গ্রহণ করে। বিশ্বের কয়েকটি জায়গার মধ্যে হংকং হচ্ছে একটি যেখানে বিদেশ থেকে আসা ভ্রমণকারীদের আগমনের পরে এখনও কোয়ারেন্টিনে থাকা বাধ্যতামূলক তবে সময়ের সাথে সাথে কোয়ারেন্টিনের মেয়াদ হ্রাস পেয়েছে। বর্তমানে, আগতদের অবশ্যই একটি হোটেলে তিন দিনের জন্য অর্থ প্রদান করে সেখানে কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে এবং এর পর চার দিন নিজেকে স্ব-পর্যবেক্ষণে রাখতে হবে।

হোটেলের অংশটি এখন বাতিল করা হবে এবং তার পরিবর্তে সাত দিনের স্ব-পর্যবেক্ষণে থাকা নিয়মটি থাকবে , দ্য সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট বিভিন্ন সূত্রকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছেযে স্ব-পর্যবেক্ষণের জন্য বর্তমান নিয়ম অনুসারে, লোকেরা তাদের নিজের বাড়িতে থাকতে পারে তবে তাদের পরীক্ষা করতে হবে এবং তাদের চলাচলের উপর কিছু বিধিনিষেধ রয়েছে।

স্থানীয় অন্যান্য সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, এই সপ্তাহেই এই পরিবর্তনের কথা ঘোষণা করা হতে পারে।

ব্যবসায়ী গোষ্ঠী, কূটনীতিক এবং অনেক অধিবাসীরা ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে শুরু হওয়া হোটেল কোয়ারেন্টিনের নিয়ম-কানুন এবং শহরের অন্যান্য কোভিড বিধিনিষেধের সমালোচনা করে বলেছেন যে তারা বিশ্ব-অর্থনীতির কেন্দ্র হিসাবে হংকংয়ের অবস্থানকে হুমকির মুখে ফেলেছে।

সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী ২০২১ সালের মাঝামাঝি থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ১ লাখ ১৩ হাজার মানুষ কভিড নিষেধাজ্ঞার কারণে হংকং ত্যাগ করেছেন।

ঐ নিয়মগুলির কারণে বিশ্বের ব্যস্ততম বিমানবন্দরগুলির মধ্যে একটি হংকং-ৎর বিমানবন্দর থেকে বিমান সংস্থাগুলিকে তাদের কয়েক ডজন ফ্লাইটের রুট ছেড়ে দিতে বাধ্য করেছে। এর ফলে অনেক অনুষ্ঠান বাতিল বা স্থগিত করতে হয়েছে।

ব্যবসা বাণিজ্যকে আরও স্বাভাবিক পর্যায়ে ফিরিয়ে আনার প্রচেষ্টার অংশ হিসাবে হংকং নভেম্বর মাসে একটি বড় আর্থিক সম্মেলন এবং আন্তর্জাতিক রাগবি সেভেনস হোস্ট করার পরিকল্পনা করছে। তবে ব্যাংকাররা বলছেন, সম্মেলনে যোগ দেওয়ার জন্য পূর্বশর্ত হচ্ছে কোয়ারেন্টিন-মুক্ত ভ্রমণ।

অন্যান্য কোভিড বিধিনিষেধও শিথিল করা হবে কিনা তা স্পষ্ট নয়। হংকং এখনও চারজনের বেশি মানুষের প্রকাশ্য সমাবেশ নিষিদ্ধ রেখেছে এবং সেখানে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক এমনকি দুই বছরের কম বয়সী শিশুদের ক্ষেত্রেও।

XS
SM
MD
LG