অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সেচে পরাস্ত অনাবৃষ্টি, বাংলাদেশে আমন আবাদের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত: কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর


সেচে পরাস্ত অনাবৃষ্টি, বাংলাদেশে আমন আবাদের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত।

খরা আর অনাবৃষ্টির কারণে, বাংলাদেশে আমন মৌসুমের আবাদ নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছিল। সেই শঙ্কা পেছনে ফেলে চলমান আমন মৌসুমে ধান আবাদের লক্ষ্যমাত্রা শতভাগ অর্জিত হয়েছে। আর, এই সাফল্যের পেছনে রয়েছে পরিকল্পিত সেচ।

শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এ বছর আবাদ লক্ষ্যমাত্রায় জমির পরিমান ৫৯ লাখ হেক্টর। আর উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১ কোটি ৬৩ লাখ মেট্রিক টন চাল।

বাংলাদেশে ২০২০-২১ সালে, আমন ধানের আবাদ হয়েছিল ৫৬ লাখ ২৫ হাজার হেক্টর জমিতে এবং উৎপাদন হয়েছিল এক কোটি ৪৫ লাখ টন চাল। গতবছর, ২০২১-২২ সালে আবাদ হয়েছে ৫৭ লাখ ২০ হাজার হেক্টর জমিতে। আর, উৎপাদন হয় ১ কোটি ৫০ লাখ টন চাল।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, “খরা আর কম বৃষ্টিপাতের কারণে, আমন ধান আবাদে প্রায় ১৫ লাখ হেক্টর জমিতে সেচ দিতে হয়েছে। সেচকাজে ছয় লাখ ৭৪ হাজার গভীর নলকূপ, অগভীর নলকূপ, এলএলপিসহ বিভিন্ন সেচযন্ত্র ব্যবহৃত হয়েছে। বাংলাদেশে মোট সেচযন্ত্রের সংখ্যা ১৪ লাখেরও বেশি।”

সম্প্রতি ময়মনসিংহে এক কর্মসূচিতে কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, “আমন উৎপাদনে অনিশ্চয়তা কেটে গেছে। আর কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে, আমনে উৎপাদন গত বছরের তুলনায় বেশি হতে পারে।”

XS
SM
MD
LG