অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাইডেন প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর ম্যাক্রঁর যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম রাষ্ট্রীয় সফর


ফাইল ছবি – জার্মানিতে জি৭ সম্মেলনের গ্রুপ ছবি তোলার পর ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাক্রঁ (মাঝে) যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে কথা বলছেন (২৬ জুন, ২০২২)

ডিসেম্বরের শুরুতে ওয়াশিংটন যাবেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রঁ। এটাই হবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বর্তমান মেয়াদে দেশটিতে ফরাসি রাষ্ট্রপ্রধানের প্রথম রাষ্ট্রীয় সফর। তাঁর এই সফর বেশ ধূমধামের সঙ্গে পালন করা হবে যার লক্ষ্য হবে যুক্তরাষ্ট্র এবং তার ঘনিষ্ঠ মিত্রদের সঙ্গে সম্পর্কের উদযাপন।

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচন ও থ্যাংকসগিভিং ছুটির পর, ডিসেম্বরের ১ তারিখের সফরটি হবে যুক্তরাষ্ট্রে ম্যাক্রঁর দ্বিতীয় রাষ্ট্রীয় সফর। এ বছরের শুরুতে তিনি দ্বিতীয় মেয়াদে নির্বাচিত হন। এর আগে ২০১৭ সালের মে মাসে প্রথমবারের মতো ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচনের পর তিনি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের আমলে প্রথম সফরে যান।

হোয়াইট হাউজের প্রেস সচিব কারিন জ্যঁ পিয়েরে সোমবার এই সফরের ঘোষণা দিয়ে জানান, এতে “আমাদের সবচেয়ে পুরনো মিত্র ফ্রান্সের সঙ্গে গভীর ও দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্ক নিশ্চিত হবে।” এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে করোনাভাইরাস মহামারির পর প্রথমবারের মতো হোয়াইট হাউজ একজন বৈশ্বিক নেতার রাষ্ট্রীয় সফরের আয়োজক হতে যাচ্ছে।

এই আমন্ত্রণে এটাই বোঝা যাচ্ছে, যে বাইডেন ও ম্যাক্রঁর মধ্যে সুসম্পর্ক তৈরি হয়েছে। গত বছর অস্ট্রেলিয়ার কাছে পারমাণবিক সাবমেরিন বিক্রির ঘোষণা দেওয়ার পর এই সম্পর্কে ফাটল ধরে। যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ফ্রান্সের ইতোমধ্যে স্বাক্ষরিত ডিজেল শক্তিতে চালিত সাবমেরিন বিক্রয়ের চুক্তিকে খর্ব করে।

এই ঘোষণার পর ফ্রান্স সাময়িকভাবে ওয়াশিংটন থেকে ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে প্রত্যাহার করে। যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া ও যুক্তরাজ্যের মধ্যে নতুন একটি নিরাপত্তা চুক্তির ফল হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র সাবমেরিন বিক্রির চুক্তি করে। বাইডেন ম্যাক্রঁর সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের করার জন্য পরবর্তীতে স্বীকার করেন, তার প্রশাসন এই বিষয়টিকে খুব ‘হেলাফেলার’ সঙ্গে মোকাবিলা করেছে।

পরবর্তীতে বাইডেন প্রশাসন ইউক্রেনে রাশিয়ার ৭ মাস ব্যাপী যুদ্ধে পশ্চিমা মিত্রদের মধ্যে সবচেয়ে উচ্চকণ্ঠ নেতা হিসেবে ম্যাক্রঁর ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করে, বিশেষত রাশিয়ার বিরুদ্ধে বড় আকারে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা ও

২০১৮ সালের এপ্রিলে ম্যাক্রঁর সর্বশেষ সফরে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও তার স্ত্রী মেলানিয়া, ম্যাক্রঁ ও তার স্ত্রী ব্রিজিতকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট জর্জ ওয়াশিংটনের ভার্জিনিয়া এস্টেটের মাউন্ট ভার্ননে নিয়ে যান।

XS
SM
MD
LG