অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জোরপূর্বক নিয়োগ এড়াতে পলায়নরত রুশদের ফেরত পাঠাবে না উজবেকিস্তান


সীমান্ত অতিক্রম করে কাজাখস্তানে প্রবেশের পর, কাজাখস্তানের রাজধানী আস্তানা থেকে ১,৪০০ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থিত কাজাখস্তানের ইউরালস্ক শহরে কাজাখস্তানে নিবন্ধিত হওয়ার জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন রুশরা।

ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযান চলাকালীন, জোরপূর্বক সামরিক বাহিনীতে নিয়োগ এড়াতে মধ্যএশিয়ায় দলে দলে পালাতে থাকা রুশদের ফেরত পাঠানোর উজবেকিস্তানের কোন পরিকল্পনা নেই বলে, দেশটির সরকার শুক্রবার জানায়।

প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন গত সপ্তাহে আংশিকরূপে সৈন্যসন্নিবেশ করার নির্দেশ দিলে, লক্ষ লক্ষ পুরুষ রাশিয়া ছেড়ে চলে যায়। তাদের কেউ কেউ নিজেদের পরিবারকে সাথে নিয়েও পালায়। তাদের মধ্যে অনেকেই উজবেকিস্তান, কাজাখস্তান ও মধ্যএশিয়ার অন্যান্য সাবেক সোভিয়েত রিপাবলিকগুলো অভিমুখে যাত্রা করেন।

তবে, জোরপূর্বক নিয়োগ এড়িয়ে যাওয়াদের মধ্যে কেউ কেউ ঐ সব দেশে নিজেদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন, কারণ ঐ দেশগুলোর রাশিয়ার সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে।

\উজবেকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রক এক বিবৃতিতে বলে, তারা অন্যান্য দেশের সার্বভৌমত্ব ও ভূখণ্ডের অখণ্ডতার মত মূলনীতিগুলোর প্রতি অঙ্গীকারাবদ্ধ এবং ইউক্রেন সংঘাতের একটি শান্তিপূর্ণ সমাধানকে তারা সমর্থন করে।

তাতে বলা হয়, “যে সকল বিদেশী নাগরিক কোন আইন ভঙ্গ করেননি তাদেরকে জোরপূর্বক ফেরত পাঠানো হবে না।”

সৈন্য সন্নিবেশের ঘোষণার পর থেকে কতজন রুশ তাদের দেশে এসে পৌঁছেছেন তা উজবেকিস্তান জানায়নি। প্রতিবেশী দেশ কাজাখস্তান জানিয়েছে যে, তারা ১,০০,০০০ মানুষের আগমন গণনা করেছে।

উজবেকিস্তানের কর্মকর্তারা এই সপ্তাহে রাজধানী তাশখন্দ-এ একটি গানের তালে নাচার জন্য এক রুশ ব্যালে ড্যান্সার-কে তিরস্কার করেছেন, কারণ সেটিকে রাশিয়ার যুদ্ধ প্রচেষ্টার সমর্থন হিসেবে বিবেচনা করা হতে পারে।


XS
SM
MD
LG