অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কার্ল কুবেল পুরস্কার পেলেন নোবেল বিজয়ী অধ্যাপক মুহাম্মদ ইউনূস


কার্ল কুবেল পুরস্কার হাতে নোবেল বিজয়ী অধ্যাপক মুহাম্মদ ইউনূস

কার্ল কুবেল ফাউন্ডেশন ফর চাইল্ড অ্যান্ড ফ্যামিলি, সম্প্রতি নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী অধ্যাপক মুহাম্মদ ইউনূসকে কার্ল কুবেল পুরস্কারে ভূষিত করেছে। ইউনূস সেন্টার সোমবার (৩ অক্টোবর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ফাউন্ডেশন সারা বিশ্বের পরিবারের প্রতি তার অসাধারণ এবং বহুমুখী প্রতিশ্রুতিকে সম্মানিত করেছে।‘পরিবারের গণনা’ কার্ল কুবেল ফাউন্ডেশনের জয়ন্তী নীতি। এই বছর জার্মানির বেনশেইমে সংস্থাটি তার ৫০তম বার্ষিকী উদযাপন করেছে।

কার্ল কুবেল ফাউন্ডেশনের বোর্ডের ডেপুটি চেয়ার-ওম্যান ড. কার্স্টিন হামবার্গ বলেছেন, “ইউনূস তার নারী গ্রাহকদের সন্তান ও পরিবারের জন্য আরও ভাল জীবনযাপন সম্ভব করেছেন।”

কার্ল কুবেল ফাউন্ডেশন, কোভিড-১৯ মহামারী ও বৈশ্বিক উষ্ণতা থেকে নতুন যুদ্ধ পর্যন্ত প্রসারিত বৈশ্বিক সংকটের সময়ে বাংলাদেশের অর্থনীতিবিদকে একটি বড় আশার উৎস হিসেবে প্রশংসা করেন।

ড. কার্স্টিন হামবার্গ বলেন, “তিনি সত্যিই একজন গেম চেঞ্জার এবং আশার স্রষ্টা’। আমরা প্রত্যেকেই, আমাদের চার পাশের অন্যদের জীবনকে ইতিবাচক ভাবে প্রভাবিত করতে পারি।”

ড. কার্স্টিন হামবার্গ, সমাজসেবী কার্ল কুবেল ও মুহাম্মদ ইউনুসের মধ্যে সাদৃশ্য তুলে ধরেন। বলেন, “উভয়ই ১৯৮০ এর দশকের প্রথম দিকে উদ্যোক্তা হিসেবে স্বেচ্ছায় ‘মানুষদের নিজেদের সাহায্য করতে সহায়তা করার’ ব্যাপারে উদ্যোগ নিয়েছিলেন।”

উদ্যোক্তা কার্ল কুবেল ১৯৭২ সালে কার্ল কুবেল ফাউন্ডেশন ফর চিলড্রেন অ্যান্ড ফ্যামিলি প্রতিষ্ঠা করেন। এই প্রতিষ্ঠান ‘মানুষকে নিজেদের সাহায্য করতে সহায়তা করার নীতি’ অনুসারে কাজ করে এবং জার্মানি ও বিদেশে সুবিধাবঞ্চিত মানুষকে সাহায্য করে।

কার্ল কুবেল ফাউন্ডেশন ফর চিলড্রেন অ্যান্ড ফ্যামিলির সদর দপ্তর, দক্ষিণ হেসের বেনশেইমে অবস্থিত। গত ৫০ বছর ধরে বিশ্বব্যাপী এটি শিশু ও তাদের পিতামাকে সহায়তা করছে।

XS
SM
MD
LG