অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইরানের ফোয়ারাগুলো লাল রঙ করে এক শিল্পী রক্তাক্ত দমন অভিযানের প্রতিফলন ঘটিয়েছেন


৭ অক্টোবর টুইটারে পোস্ট করা ছবিটিতে তেহরানের স্টুডেন্ট পার্কের একটি ঝরনা দেখা যাচ্ছে। মাহসা আমিনের মৃত্যুতে কয়েক সপ্তাহ ধরে চলা বিক্ষোভে ইরানী শাসকগোষ্ঠীর মারাত্মক দমন-পীড়নের প্রতিবাদে এক শিল্পী পানি লাল রং করেছেন বলে অভিযোগ।

ইরানে এক শিল্পী শুক্রবার তেহরানের ফোয়ারাগুলোর পানি লাল রঙ্গ করেছেন যা কিনা দেখে মনে হচ্ছে সেখানে রক্ত ঢালা হচ্ছে। নৈতিক পুলিশের হেফাজতে মাহসা আমিনির মৃত্যুকে ঘিরে কয়েক সপ্তাহ ধরে ছড়িয়ে পড়া বিক্ষোভের মাঝে যে একটি মারাত্মক দমন অভিযান চলে শিল্পী এতে তারই প্রতিফলন ঘটিয়েছেন।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর তেহরানে ২২ বছর বয়সী কুর্দি নারীর মৃত্যুর খবর ঘোষণার পর থেকে ইরানে ব্যাপকভাবে অস্থিরতা ছড়িয়ে পরেছে। ইসলামী প্রজাতন্ত্রে নারীদের কঠোর পোষাক বিধি পালনে ব্যর্থ হওয়ার অভিযোগে মাহসা আমিনিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।

তার মৃত্যুতে ক্ষোভ যে প্রচণ্ড প্রতিবাদের সৃষ্টি করেছে তা প্রায় তিন বছরের মধ্যে ইরানকে কাঁপিয়ে দিয়েছে এবং বিক্ষোভ দমন করার জন্য অসংখ্য প্রতিবাদকারীকে হত্যা এবং শত শত লোককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তাদের দমন করার জন্য নিরাপত্তা বাহিনী প্রাণঘাতী শক্তি ব্যবহার করেছে তা সত্ত্বেও টানা ২০ দিন এবং রাত ধরে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে এই তথ্য এএফপির অনলাইনের ভিডিওগুলো যাচাই করেছে।

1500 তাসভির সোশ্যাল মিডিয়া চ্যানেল অনলাইনে রক্তের মত লাল ফোয়ারাগুলির ছবিগুলি শেয়ার করা হয়েছে। এই সোশ্যাল মিডিয়া চ্যানেলটি ঐ ইসলামি প্রজাতন্ত্রের লঙ্ঘনগুলির নজরদারি করে।

তেহরানের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত - স্টুডেন্ট পার্ক, ফাতেমি স্কোয়ার এবং আর্টিস্টস পার্কের ফোয়ারাগুলিতে লাল রং দেখা গেছে।

সক্রিয়কর্মীরা টুইটারে লাল ফোয়ারাগুলোকে "তেহরান রক্তে আবৃত" শিরোনামের "শিল্পকর্ম" হিসাবে বর্ণনা করেছে। তারা আরও লিখেছেন যে এক বেনামী শিল্পী ঐসব তৈরি করেছে।

বিবিসির ফার্সি সার্ভিস জানিয়েছে যে পানি নিষ্কাশন করার পরেও ফোয়ারাগুলোতে এখনও লাল রঙের চিহ্ন দেখা যাচ্ছে।

XS
SM
MD
LG