অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

'ঐতিহাসিক' ইসরাইল-লেবানন সামুদ্রিক সীমান্ত চুক্তিকে স্বাগত জানালেন বাইডেন


২০২২ সালের ৭ অক্টোবর, দুই দেশের মধ্যে সীমান্তের ইসরাইলি অংশে, রশ হানিক্রার কাছে, যা লেবাননে রাস আল-নাকুরা নামে পরিচিত, সেখানে ভূমধ্যসাগরীয় জলসীমায় টহল চলাকালীন সমুদ্র সৈকতে লোকজন হাঁটছে।
২০২২ সালের ৭ অক্টোবর, দুই দেশের মধ্যে সীমান্তের ইসরাইলি অংশে, রশ হানিক্রার কাছে, যা লেবাননে রাস আল-নাকুরা নামে পরিচিত, সেখানে ভূমধ্যসাগরীয় জলসীমায় টহল চলাকালীন সমুদ্র সৈকতে লোকজন হাঁটছে।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন মঙ্গলবার ইসরাইল ও লেবাননের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় সামুদ্রিক সীমান্ত চুক্তিকে "মধ্য প্রাচ্যের একটি ঐতিহাসিক অগ্রগতি" হিসাবে অভিহিত করেছেন । এই চুক্তি নগদ-সঙ্কটে জর্জরিত লেবাননকে ভূমধ্যসাগরে সম্ভাব্য জমা গ্যাস খোঁজার অনুমতি দিবে এবং ইসরাইলকে অস্থিতিশীল অঞ্চলে আরও

নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা দেবে।এক বিবৃতিতে বাইডেন বলেন, ‘’উভয় দেশের সরকার আজ যে চুক্তি ঘোষণা

করেছে, তা উভয় দেশের উপকারের জন্য জ্বালানি ক্ষেত্রের উন্নয়নের ব্যবস্থা করবে, আরও স্থিতিশীল ও সমৃদ্ধ অঞ্চল স্থাপনে সাহায্য করবে এবং বিশ্বের জন্য গুরুত্বপূর্ণ নতুন শক্তি সম্পদকে কাজে লাগাবে। "

দুই প্রতিবেশী আনুষ্ঠানিকভাবে কয়েক দশক ধরে যুদ্ধে লিপ্ত হয়েছে এবং তাদের কোনও সরকারী যোগাযোগ না থাকায় চুক্তিটির জন্য যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা বেশ কয়েক মাস ধরে মধ্যস্থতা করছিল।

ইসরাইল ২০১০ সালে তার উপকূলে বিশাল পরিমাণ আমানত আবিষ্কার করে, কিন্তু লেবানন উদ্বেগ প্রকাশ করে যে এই আমানত লেবাননের জলসীমায় প্রসারিত হতে পারে। লেবাননের ইরান সমর্থিত হিজবুল্লাহ পার্টি হুমকি দিয়ে বলেছে, তারা তাদের ভূখণ্ডকে রক্ষা করবে ।

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় বাইডেন প্রশাসনের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এই চুক্তিকে ভারসাম্যপূর্ণ বলে বর্ণনা করেছেন।

নাম প্রকাশ না করে হোয়াইট হাউজের একজন কর্মকর্তা বলেন " চুক্তিটি একটি জয়-পরাজয়ের চুক্তি নয়, ইসরাইলের জন্য বিজয় নিরাপত্তা, স্থিতিশীলতা এবং অর্থনৈতিক লাভকে ঘিরে।লেবাননের জন্য জয় হচ্ছে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি, অর্থনৈতিক উন্নয়ন, প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ এবং অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের আশা।”

উভয় দেশের শীর্ষ কর্মকর্তারা বলেছেন, তারা এই চুক্তিতে সন্তুষ্ট, যা পরবর্তীতে দুই দেশের সংসদে উপস্থাপিত হয়।

"আমাদের সমস্ত দাবি পূরণ করা হয়েছে, আমরা যে পরিবর্তনগুলি চেয়েছিলাম তা সংশোধন করা হয়েছে। আমরা ইসরাইলের নিরাপত্তা স্বার্থ রক্ষা করেছি এবং একটি ঐতিহাসিক চুক্তির পথে এগিয়ে যাচ্ছি।" ইসরাইলের জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের পরিচালক এবং দেশের আলোচনা দলের প্রধান ইয়াল হুলাটা মঙ্গলবার বলেন।

ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী ইয়াইর লাপিডের কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে, তিনি বুধবার নিরাপত্তা মন্ত্রিসভা আহ্বান করবেন এবং এরপর সরকারের একটি বিশেষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

"প্রস্তাবের চূড়ান্ত সংস্করণটি লেবাননকে সন্তুষ্ট করে, তার দাবিগুলি পূরণ করে এবং তার প্রাকৃতিক সম্পদের উপর তার অধিকার সংরক্ষণ করে," লেবাননের রাষ্ট্রপতি মিশেল আউন এক বিবৃতিতে বলেছেন।

ব্রুকিংস ইনস্টিটিউশনের সিনিয়র ফেলো ব্রুস রিডেল বলেন, এই চুক্তি থেকে প্রতিটি পক্ষই লাভবান হবে।

XS
SM
MD
LG