অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইউক্রেনের আঞ্চলিক অখণ্ডতা: জাতিসংঘ প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছে বাংলাদেশ


রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ বিষয়ে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ১১তম জরুরি বিশেষ অধিবেশনে, ‘ইউক্রেনের আঞ্চলিক অখণ্ডতা: জাতিসংঘ সনদের মূলনীতি রক্ষা’ শীর্ষক জাতিসংঘের প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছে বাংলাদেশ।

ভোটদানের ব্যাখ্যায় বাংলাদেশ জানিয়েছে, “আমরা তা করেছি কারণ আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি যে সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখণ্ডতার প্রতি সম্মান এবং সমস্ত বিরোধের শান্তিপূর্ণ নিষ্পত্তির বিষয়ে জাতিসংঘের সনদের উদ্দেশ্য ও নীতি অবশ্যই সর্বত্র, সবাইকে কোনো ব্যতিক্রম ছাড়াই সর্বজনীনভাবে মেনে চলতে হবে।”

বাংলাদেশ আরও জানিয়েছে, “জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্র হিসেবে শান্তি ও উন্নয়নের জন্য আমাদের একসঙ্গে কাজ চালিয়ে যেতে হবে। আমরা বিশ্বাস করি আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত সীমানার মধ্যে যে কোনো দেশের সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখণ্ডতাকে সম্মান করা উচিত।”

ব্যাখ্যায় আরও বলা হয়, “ইউক্রেনের সংঘাতের ধারাবাহিকতা ও এর বৈশ্বিক আর্থ-সামাজিক প্রভাব নিয়ে বাংলাদেশ গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। বাংলাদেশ বিশ্বাস করে যে যুদ্ধের মতো বৈরিতা বা অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা, পাল্টা নিষেধাজ্ঞা কোনো জাতির উপকার করতে পারে না। সংলাপ, আলোচনা ও মধ্যস্থতা হচ্ছে সংকট ও বিরোধ সমাধানের সর্বোত্তম উপায়।”

বাংলাদেশ বলেছে, “জাতিসংঘ ও এসজি (মহাসচিব) অফিসের পাশে থাকা অব্যাহত রাখব এবং আমরা যেভাবে পারি তাদের সমর্থন করব। আমরা আহ্বান জানাই যে বিশ্বের সর্বস্তরের জনগণের বিশ্বাস ও আস্থা অর্জনের জন্য জাতিসংঘ ও এসজি অফিসকে অবশ্যই সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে হবে এবং সবার প্রত্যাশা পূরণে কাজ করতে হবে।”

সব পক্ষকে শান্তিপূর্ণ উপায়ে সব বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য এবং আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তাকে বিপন্ন করতে পারে এমন কোনো পদক্ষেপ নেওয়া থেকে বিরত থাকার জন্য তাৎক্ষণিকভাবে কূটনৈতিক সংলাপ পুনরায় শুরু করার জন্য ইতিবাচক ভূমিকা পালন করতে এসজি (মহাসচিব) অফিসের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ।

XS
SM
MD
LG