অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

এরদোয়ান: তুরস্কে কয়লা খনিতে বিস্ফোরণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪১ হয়েছে


তুরস্কের কৃষ্ণ সাগরের উপকূলীয় প্রদেশ বারতিনের আমাসরাতে কয়লা খনিতে বিস্ফোরণের পর খনি শ্রমিকরা একজন নিহতের লাশ বহন করে নিয়ে যাচ্ছে। ১৪ অক্টোবর, ২০২২।

তুরস্কের উত্তর বারতিন প্রদেশে শুক্রবার একটি কয়লা খনিতে বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা ৪১ এ পৌঁছেছে বলে শনিবার জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট তাইয়েপ এরদোয়ান।

এর আগে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেমান সোয়লু বলেছিলেন যে বিস্ফোরণের সময় খনিতে কাজ করা ১১০ জনের মধ্যে ৫৮ জনকে দলগুলি উদ্ধার করেছে বা তারা নিজেরাই বেরিয়ে আসতে পেরেছে।

সোয়লু আরও বলেন যে একজন খনি শ্রমিককে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে এবং ১০ জন এখনও বার্টিন এবং ইস্তাম্বুলে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে যে তুরস্কের প্রসিকিউটররা ঘটনার কারণ অনুসন্ধান শুরু করেছেন তবে প্রাথমিক ইঙ্গিত ছিল যে বিস্ফোরণটি ফায়ারড্যাম্পের কারণে হয়েছিল। ফায়ারড্যাম্প হলো কয়লা খনিতে মিথেনের উপস্থিতি।

জ্বালানি মন্ত্রী ফাতিহ ডোনমেজ বলেছেন খনিতে আগুন অনেকাংশে নিয়ন্ত্রণে ছিল, যদিও মাটির ৩৫০ মিটার নীচে ঘটে যাওয়া ঘটনার পরে আগুন বিচ্ছিন্নকরণ এবং শীতল করার প্রচেষ্টা অব্যাহত ছিল।

২০১৪ সালে, ইস্তাম্বুল থেকে ৩৫০ কিলোমিটার দক্ষিণে পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর সোমায় তুরস্কের সবচেয়ে খারাপ খনির বিপর্যয়ে ৩০১ জন শ্রমিক নিহত হয়েছিল।

XS
SM
MD
LG