অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

‘ইরানের সাহসী নারীদের’ পাশে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, বললেন বাইডেন ও উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা


ক্যালিফোর্নিয়ার আরভিন-এ অবস্থিত আরভিন ভ্যালি কমিউনিটি কলেজে আমেরিকান পরিবারগুলোর জন্য জীবনধারণের ব্যয় হ্রাস করা ও ইরানের ব্যাপক বিক্ষোভ বিষয়ে বক্তব্য দিচ্ছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, ১৪ অক্টোবর ২০২২।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শুক্রবার বলেন যে, ইরানের ব্যাপক বিক্ষোভে তিনি “বিস্মিত”। ইরানের নৈতিকতা পুলিশের হাতে গ্রেফতারের পর এক তরুণীর মৃত্যু হলে, দেশটিতে অনেক বছরের মধ্যে সবচেয়ে বড় আকারে বিক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

ক্যালিফোর্নিয়ার আরভিন-এ এক কলেজে “ইরানকে মুক্ত কর” লেখা হাতে নিয়ে সমবেত প্রতিবাদকারীদের উদ্দেশ্য করে বাইডেন বলেন, “আমি আপনাদেরকে জানাতে চাই যে, আমরা জনগণের সাথে রয়েছি, ইরানের সাহসী নারীদের সাথে।”

বাইডেন আরও বলেন, “ইরানে যে জাগরণের সৃষ্টি হয়েছে তা আমাকে বিস্মিত করেছে। এটি এমন একটা কিছু জাগিয়ে তুলেছে, যেটা আমার মনে হয় অনেক, অনেক সময় ধরে শান্ত হবে না।”

শুক্রবার এর আগে, ভাইস প্রেসিডেন্ট কামালা হ্যারিস, পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন ও হোয়াইট হাউজের জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা জেক সালিভান ওয়াশিংটনে অধিকার কর্মীদের সাথে সাক্ষাৎ করেন।

ভাইস প্রেসিডেন্টের দফতর এক বিবৃতিতে বলে, হ্যারিস “সমঅধিকার ও মৌলিক মানবিক মর্যাদা নিশ্চিত করতে ইরানে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদে নেতৃত্ব দানকারী সাহসী নারী ও মেয়েদের প্রতি সমর্থন” ব্যক্ত করেছেন।

এর আগে ব্লিংকেন বিদেশে অবস্থানকারী ইরানীদের বক্তব্য শোনার জন্য একটি গোলটেবিল বৈঠকে নেতৃত্ব দেন। সেখানে উপস্থিতদের মধ্যে ছিলেন, ইরানে জন্মগ্রহণকারী অভিনেত্রী ও মানবাধিকার প্রবক্তা নাজনীন বনিয়াদি, লেখক রোয়া হাকাকিয়ান ও লিঙ্গসমতা বিষয়ক সক্রিয়কর্মী শেরি হাকিমি।

ইরানের প্রেসিডেন্ট ইবরাহিম রাইসি, যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে তার দেশকে অস্থিতিশীল করতে এই বিক্ষোভ আয়োজনের অভিযোগ করেছেন। রাইসি একজন কট্টরপন্থী ধর্মীয় নেতা।

ব্লিংকেন বলেন যে তিনি এ ধরণের অভিযোগই আশা করেছিলেন যে, তার বৈঠক এটি প্রমাণ করে যে বিক্ষোভগুলো ইরানের বাইরে থেকে ঘটছে।

ইরানের নেতৃত্ব সম্পর্কে ব্লিংকেন বলেন, “সেটাই যদি হয়ে থাকে, তারা যদি সত্যি সত্যিই এটা বিশ্বাস করেন, তাহলে তারা মৌলিকভাবে – একেবারে মৌলিকভাবে – নিজেদের মানুষদেরকে নিজেরাই বুঝতে পারেন না।”


XS
SM
MD
LG