অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

অক্টোবরের দুই সপ্তাহে প্রায় ৭৭ কোটি ডলার রেমিটেন্স পেয়েছে বাংলাদেশ


অক্টোবরের দুই সপ্তাহে প্রায় ৭৭ কোটি ডলার রেমিটেন্স পেয়েছে বাংলাদেশ।

এবছরের অক্টোবর মাসের দুই সপ্তাহে (২-১৩ তারিখ) বাংলাদেশে রেমিটেন্স এসেছে ৭৬ কোটি ৯৮ লাখ ৮০ হাজার ডলার। রবিবার (১৬ অক্টোবর) বাংলাদেশ ব্যাংক এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

গত সেপ্টেম্বরে প্রবাসীরা বাংলাদেশে ১৫৪ কোটি ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছে; যা ছিল গত ৭ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন। সেপ্টেম্বরের পর, অক্টোবর মাসেও রেমিটেন্স প্রবাহে নিম্নমুখী প্রবণতা অব্যাহত রয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের একজন কর্মকর্তা জানান, “অক্টোবরের প্রথম দুই সপ্তাহে প্রবাসীরা ৭৭৬ কোটি ৯৮ লাখ ৮০ হাজার ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছে। চলতি মাসের শেষে রেমিটেন্স প্রবাহ ১৬০ কোটি ডলার হতে পারে।”

চলতি ২০২২-২৩অর্থবছরে নগদ প্রণোদনা দুই শতাংশ থেকে বাড়িয়ে দুই দশমিক পাঁচ শতাংশ করার পরও, সেপ্টেম্বরে রেমিটেন্সের অভ্যন্তরীণ প্রবাহ কমে যেতে দেখা যায়।

তিনি আরও জানান, “বাংলাদেশ এখন পর্যন্ত ব্যাংকিং চ্যানেলের মাধ্যমে প্রতিদিন গড়ে পাঁচ কোটি ৯২ লাখ ২০ হাজার ৫৯ ডলার রেমিটেন্স পাচ্ছে।

এই অর্থবছর শুরু হয়েছিল অভ্যন্তরীণ রেমিটেন্স বৃদ্ধির প্রবণতা নিয়ে। জুলাই মাসে বাংলাদেশ ২০৯ কোটি ডলার এবং আগস্ট মাসে ২০৩ কোটি ডলার প্রবাসী আয় পেয়েছে।সেপ্টেম্বরে এসে তা নিম্নমুখী হয়ে যায়।

আর্থিক খাতের পর্যবেক্ষকরা মনে করেন যে প্রবাসীরা দেশে রেমিটেন্স পাঠানোর জন্য হুন্ডিকে বেছে নিচ্ছেন। কারণ ডলারের বিনিময় হার খুচরা বাজারে ৮ থেকে ১৪ টাকা পর্যন্ত বেশি পাওয়া যায়।

XS
SM
MD
LG