অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইরানে প্রতিবাদকারীদের উপর দমন অভিযানের বিরুদ্ধে জাতিসংঘকে তদন্তের আহ্বান


ফাইল-এএফপি’র কাছ থেকে পা্ওয়া এই ছবিতে দেখা যাচ্ছে মাহসা আমিনির সমর্থনে প্রতিবাদের সময়ে মোটর বাইকে করে ইরানি পুলিশ। তেহরান, ১৯ সেপ্টেম্বর ,২০২২।

চল্লিশটিরও বেশি মানবাধিকার সংগঠনগুলি, প্রতিবাদকারীদের উপর ইরান সরকারের দমন অভিযান নিয়ে আলোচনার জন্য জাতিসংঘের মানবাধিকার পরিষদকে একটি জরুরি বৈঠক আহ্বান করতে বলছে।

সোমবার প্রকাশিত ঐ বিবৃতিতে, গত মাসে ২২ বছর বয়সী মাশা আমিনের মৃত্যুর প্রতিক্রিয়ায় দেশব্যাপী প্রতিবাদকে নৃশংস ভাবে ঐ ইসলামি প্রজাতন্ত্রের দমন অভিযানের বিরুদ্ধে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। হিজাব দিয়ে চুল না ঢাকার কারণে তেহরানে নৈতিকতা পুলিশ তাকে আটক করে এবং তিনি আটক অবস্থায় মারা যান।

মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলি বলছে উদ্বেগজনক প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে যে বিশেষ ধরণের নিরাপত্তা বাহিনী শিশুসহ দর্শক এবং প্রতিবাদকারীদের উপর ইচ্ছে করেই গোলাবারুদ নিক্ষেপ করছে।

ঐ বিবৃতিতে বলা হয়েছে বিক্ষাভের সময়ে ২০০ জনেরও বেশি প্রতিবাদকারীকে হত্যা করা হয়েছে যাদের মধ্যে অন্তত ২৩ জন শিশুও ছিল। আর ১,০০০ ‘এরও বেশি বিক্ষোভকারি, সক্রিয়বাদি , সাংবাদিক ও শিক্ষার্থীদের ইচ্ছে করে গ্রেপ্তার করা হয়।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এবং হিউমান রাইটস ওয়াচসহ বিভিন্ন গোষ্ঠী জাতিসংঘের মানবাধিকার পরিষদকে অনুসন্ধান, প্রতিবেদন প্রস্তুত এবং জবাবদিহিতার দায়িত্বসহ একটি নিরপেক্ষ সংগঠন গঠনের জন্য জোর আহ্বান জানাচ্ছে। এই আবেদনে স্বাক্ষরদাতারা বলছেন আন্তর্জাতিক সমাজ যদি ব্যবস্থা গ্রহণে ব্যর্থ হয় তা হলে অসংখ্য নারী, পুরুষ ও শিশুরা মৃত্যু, বৈকল্য, নিপীড়ন, শারিরীক ভাবে পীড়ন এবং কারাবাসের সম্মুখীন হবেন।

এই বিবৃতিতে যারা স্বাক্ষর করে তারা হচ্ছে ইরান হিউমান রাইটস, দ্য বালুচিস্তান হিউমান রাইটস নেটওয়ার্ক, দ্য হেনগাও হিউমান রাইটস অর্গানাইজশন, দ্য কুর্দিস্তান হিউমান রাইটস নেটওয়ার্ক এবং দ্য উইমেন’স ইন্টারন্যাশনাল লীগ ফর পীস এন্ড ফ্রিডম ।

XS
SM
MD
LG