অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

উপসাগরীয় অঞ্চল সফরের চূড়ান্ত দিনে 'দুর্ভোগগ্রস্ত মানুষের' জন্য প্রার্থনা করেছেন পোপ


বাহরাইন সফরের শেষ দিন, সেক্রেড হার্ট চার্চে একটি প্রার্থনা সভায় যোগ দেন পোপ ফ্রান্সিস। ৬ নভেম্বর, ২০২২। (ভ্যাটিকান মিডিয়া/রয়টার্স)

পোপ ফ্রান্সিস রবিবার বলেছেন যে, তিনি বাহরাইন সফর শেষে "মধ্যপ্রাচ্যের ভুক্তভোগী জনগণের জন্য" প্রার্থনা করছেন। রোমের একটি ফ্লাইটে চড়ার আগে এক চূড়ান্ত ভাষণে, তিনি সমবেতদেরকে "ইউক্রেনের জন্য, যে দেশটি এত ভুগছে" এবং যুদ্ধের অবসানের জন্য প্রার্থনা করার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি লেবাননী সমবেতদের উদ্দেশ্যে বলেন, "আপনাদের প্রিয় দেশটির জন্য, সেইসাথে মধ্যপ্রাচ্যের সব দুর্ভোগগ্রস্ত লোকের জন্যও" তিনি প্রার্থনা করছেন।

৮৫ বছর বয়সী আর্জেন্টাইন পোপ মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ বাহরাইনে তার চার দিনের সফরে ঊর্ধ্বতন মুসলিম কর্মকর্তা এবং উপসাগরের ক্যাথলিক বাসিন্দাদের সাথে দেখা করেন। ওই এলাকায় একটি বিশাল সংখ্যক অভিবাসী শ্রমিক সম্প্রদায় রয়েছে।

শনিবার তিনি প্রায় ৩০,০০০ লোকের জন্য একটি উন্মুক্ত গণসমাবেশে বক্তৃতা করেন, তাদের মধ্যে অনেকেই পোপের বক্তব্য শুনে আবেগে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন।

২০০০ সালে রোমান ক্যাথলিক চার্চের সাথে আনুষ্ঠানিক সম্পর্ক স্থাপন করেছিল বাহরাইন। সেখানে প্রায় ৮০,০০০ ক্যাথলিক বাসিন্দা রয়েছে, যাদের বেশিরভাগই ফিলিপাইন এবং এশিয়ার অন্যান্য দেশের শ্রমিক।

অধিকার গোষ্ঠীগুলি দীর্ঘদিন ধরে বিরোধী শিয়া ব্যক্তিত্ব এবং কর্মীদের বিরুদ্ধে বাহরাইনের সুন্নি মুসলিম শাসকদের দ্বারা বৈষম্য, নিপীড়ন এবং হয়রানির কথা উল্লেখ করে আসছেন।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বাহরাইনের আদালতকে "প্রকাশ্য অন্যায় বিচারের" ভিত্তিতে মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার অভিযোগ করেছে।

২০১৯ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাত সফরের পর, এটি ছিল উপসাগরে পোপের দ্বিতীয় সফর। তিনি বাহরাইনে কায়রোর মর্যাদাপূর্ণ আল-আজহার মসজিদের গ্র্যান্ড ইমাম শেখ আহমেদ আল-তায়েবের সাথেও দেখা করেন।

XS
SM
MD
LG