অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ফরিদপুরে বিএনপির সমাবেশ: ৩৮ ঘন্টার পরিবহন ধর্মঘট শুরু


পরিবহন ধর্মঘট
পরিবহন ধর্মঘট

বাংলাদেশের ফরিদপুরে শুক্রবার (১১ নভেম্বর) সকাল থেকে ৩৮ ঘন্টার পরিবহন ধর্মঘট শুরু হয়েছে। এতে বাস ও মিনিবাস চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছে সাধারণ যাত্রীরা।

মহাসড়কে তিন চাকার যানবাহন চলাচল বন্ধের দাবিতে, ৩৮ ঘণ্টার এ পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে ফরিদপুর জেলা বাস মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। শুক্রবার সকাল ৬ টা থেকে শুরু হওয়া এই ধর্মঘট শনিবার (১২ নভেম্বর) রাত ৮ টায় শেষ হবে বলে জানিয়েছে মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।

ধর্মঘটের বিষযয়ে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ফরিদপর জেলা শাখার পক্ষ থেকে বলা হয়, শনিবার ফরিদপুরে বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশকে সামনে রেখে এই বাস ধর্মঘট ডাকা হয়েছে।

শুক্রবার সকাল নয়টা থেকে সাড়ে দশটা পর্যন্ত ফরিদপুর শহরের পুরাতন বাসস্ট্যান্ড, নতুন বাসস্ট্যান্ড ও শহরের ইমামুদ্দিন স্কয়ার এলাকায় যাত্রীদের যানবাহনের জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। এদিকে, নতুন টার্মিনালে সারিবদ্ধভাবে দাড়িঁয়ে আছে বাসগুলো।

হাবিবুর নামের এক শ্রমিক বলেন, “আমরা ধর্মঘট করছি, আমাদের নেতারা বলছেন তাই ,আমাদের নেতাদের কথায় চলতে হয়।”

তবে, জেলায় তিন চাকার গাড়ি ও ভাড়া করা মাইক্রোবাস চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

নাটোরের কৃষি শ্রমিক গুলজার মিয়া বাসের অপেক্ষায় বসে আছেন পুরোনো বাসস্ট্যান্ডে। তিনি ফরিদপুর সদরের ডিক্রির চর ইউনিয়নে এসেছিলেন ভুট্টার খেতে কাজ করতে। বাড়িতে স্ত্রী-সন্তান জ্বরে আক্রান্ত। তিনি জানান, “বাসস্ট্যান্ড-এ এসে দেখি বাস চলাচল বন্ধ।”

আরেক শ্রমিক বলেন, “এতটা পথ ইজিবাইকে (অটোরিকশা) ভেঙে ভেঙে যাওয়া সম্ভব নয়। তাছাড়া ভাড়াও লাগবে অনেক বেশি, তাই বাসের অপেক্ষায় বসে আছি।”

গত ৭ নভেম্বর জেলার মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক গোলাম নাসির স্বাক্ষরিত একটি চিঠি ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারের কাছে পাঠানো হয়। চিঠিতে বলা হয়, “১০ নভেম্বরের মধ্যে দাবি মানা না হলে, পরদিন সকাল ৬টা থেকে ১২ নভেম্বর রাত ৮টা পর্যন্ত (৩৮ ঘণ্টা) সব ধরনের বাস চলাচল বন্ধ রাখা হবে।”

গোলাম নাসির বলেন, “আমাদের দাবির বিষয়ে প্রশাসনের কাছ থেকে কোনও ইতিবাচক সাড়া না পাওয়ায় ধর্মঘটে যেতে বাধ্য আমরা বাধ্য হয়েছি।”

এদিকে, বরিশালসহ দক্ষিণাঞ্চলের ৫টি জেলার সঙ্গে রাজধানী ঢাকার সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে বরিশাল, পটুয়াখালী, ঝালকাঠী, বরগুনা ও পিরোজপুর থেকে ঢাকা রুটে বাস চলাচল করছে না। ঢাকা রুটে বাস বন্ধের পূর্ব-ঘোষণা না থাকায় যাত্রীরা বিপাকে পড়েছেন।

বরিশাল বাস মালিক গ্রুপের সভাপতি গোলাম মাশরেক বাবলু জানান, “বৃহত্তর ফরিদপুর বাস মালিক-শ্রমিকরা শুক্র ও শনিবার ৩৮ ঘন্টার পরিবহন ধর্মঘট আহ্বান করেছে। বরিশালসহ দক্ষিণাঞ্চল থেকে ঢাকা রুটের বাসগুলো ফরিদপুরের ভাঙ্গা মোড় অতিক্রম করতে হয়। পরিবহন ধর্মঘট থাকায় ঐ জেলার সড়ক পথে বাস চলাচল করতে দেবেন না ফরিদপুরের পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা। তাই দক্ষিণাঞ্চলের সব জেলা থেকে রাজধানীতে বাস চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।”

এর আগে, গত শনিবার (৫ নভেম্বর) বিএনপির বরিশাল বিভাগীয় সমাবেশকে কেন্দ্র করে দুই দিন বরিশালে বাসসহ সব ধরনের ইঞ্জিন চালিত যানবাহন বন্ধ রাখা হয়েছিল।

XS
SM
MD
LG