অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

গ্রামে ফিরে যান, ফসলের উৎপাদন বাড়ান: যুবলীগ নেতাকর্মীদের প্রতি শেখ হাসিনা


বাংলাদেশের গ্রামের শস্যক্ষেত্র

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা যুবলীগের নেতাকর্মীদের গ্রামে গিয়ে ফসল উৎপাদন বাড়াতে কাজ করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। শেখ হাসিনা বলেন, “আমি যুবলীগের প্রতিটি কর্মী ও নেতাকে গ্রামে যেতে বলব এবং কোনো জমি যেন অনাবাদি না থাকে তা নিশ্চিত করতে আহবান জানব।”

শুক্রবার (১১ নভেম্বর) রাজধানী ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুব সংগঠন, বাংলাদেশ যুবলীগের সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে আয়োজিত যুব মহাসমাবেশে শেখ হাসিনা এ কথা বলেন। তিনি বলেন, “১৯৭২ সালের ১১ নভেম্বর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে শেখ ফজলুল হক মণি বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ গঠন করেন।”

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেন “ইউক্রেন যুদ্ধ, নিষেধাজ্ঞা ও পাল্টা নিষেধাজ্ঞার কারণে বিশ্ববাজারে প্রতিটি পণ্যের দাম বেড়েছে। আমাদের অন্যের ওপর নির্ভরশীল না হয়ে আত্মনির্ভরশীল হওয়া উচিত। তাই,আমি এক ইঞ্চি জমিও অনাবাদি না রাখার আহ্বান জানিয়েছি।”

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন যে যুবলীগ ও আওয়ামী লীগের অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা কোভিড-১৯ মহামারীর সময় তার আহ্বানে সাড়া দিয়ে কৃষকদের ফসল তুলতে সাহায্য করেছেন। তিনি যুবলীগ নেতাদের প্রতি নিজের জমি চাষ করতে এবং অন্যদের জমিতে ফসল ফলাতে সহায়তা করার আহ্বান জানান। বলেন, “এখন আমাদেরকে আগের মতো জনগণের পাশে দাঁড়াতে হবে। আপনাদের দেশ ও জনগণের সেবা করতে হবে।”

শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদক ও দুর্নীতিমুক্ত দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে যুবলীগের সদস্যদের কাজ করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, “প্রত্যেক নেতাকর্মীকে প্রতিশ্রুতি দিতে হবে এবং সেই অনুযায়ী কাজ করতে হবে। সেই সঙ্গে অন্য যুবকদের মধ্যেও এ বিষয়ে এমন মনোভাব গড়ে তুলতে হবে।”

এর আগে, শেখ হাসিনা অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছালে যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মইনুল হোসেন খান নিখিল তাকে স্বাগত জানান। এরপর পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে সমাবেশের সূচনা করেন আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা।

XS
SM
MD
LG