অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাউলদের ওপর হামলার প্রতিবাদে কুষ্টিয়ায় মানববন্ধন


বাউলদের ওপর হামলার প্রতিবাদে কুষ্টিয়ায় মানববন্ধন

বাংলাদেশের কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুরের লাউবাড়িয়াতে, সাধুসঙ্গে বাউলদের ওপর হামলার প্রতিবাদে এবং হামলাকারীদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (১২ নভেম্বর) সকালে বাউল সম্রাট লালন ভক্তবৃন্দের উদ্যোগে, কুমারখালী উপজেলার ছেঁউড়িয়া লালন একাডেমির সামনের সড়কে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া লালন একাডেমির এডহক কমিটির সদস্য মুক্তিযোদ্ধা তাইজাল আলী খান ও মুক্তিযোদ্ধা জাহিদ হোসেন জাফর। এছাড়া লালন ভক্তদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সুফি সাজেদুল ইসলাম ডালিম, ফকির ফজল সাঁই, ফকির সফি সাঁই, ফকির মইনুদ্দিন সাঁই। মানববন্ধন চলাকালে, বাউলদের নিরাপত্তায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, “লালন অনুসারী ভক্তবৃন্দ সাধুরা নির্বিরোধী শান্ত প্রকৃতির মানুষ। তারা কোন অপরাধমূলক কাজের সঙ্গে জড়িত হন না। সাধুদের ওপর এমন হামলা কোনোভাবেই কাম্য নয়।’’ এই হামলায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে বিচারের দাবি জানান বক্তারা।

পুলিশ ও সাধুসঙ্গ সূত্রে জানা গেছে, গত শনিবার (৫ নভেম্বর) রাতে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার লাউবাড়িয়া এলাকায় পলান ফকিরের বাড়িতে সমবেত হয়েছিলেন সাধুরা। সেখানে তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। হামলায় গুরুতর আহতাবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন পাঁচ নারী-পুরুষ লালন ভক্ত। গুরুতর আহত হয়েছেন সবচেয়ে বয়োজ্যেষ্ঠ ফজল ফকির। পিটিয়ে জখম করা হয়েছে নারী লালন ভক্তদেরও। এসময় কয়েকটি ঘরবাড়ি ভাঙচুর করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) দৌলতপুর থানায় ১৯ জনেকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা করেন পলান ফকির। এ বিষয়ে দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি) মজিবুর রহমান জানান, “থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চলছে।”

XS
SM
MD
LG